সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটুট রাখতে সবাইকে সজাগ ও সতর্ক থাকতে হবে

pic-o-c-26-11-2016-1.jpg

পেকুয়ার বারবাকিয়া রাখাইনপাড়ায় কমিউনিটিং পুলিশের মতবিনিময় সভায় বক্তারা

এস.এম.ছগির আহমদ আজগরী;পেকুয়া(কক্সবাজার)সংবাদদাতা.
কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের রাখাইনপাড়ায় কমিউনিটিং পুলিশের মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেছেন, স্বঃ স্বঃ এলাকায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটুট ও সকল ধর্মালম্বী মানূষের জানমালের নিরাপত্তা বজায় রাখতে সকল ধর্মাবলম্বীদের সজাগ ও সতর্ক অবস্থানে থেকে কাজ করতে হবে। ৯মাসের মুক্তিযূদ্ধে লাখো মানূষের আত্মত্যাগে অর্জিত আমাদের দেশের সংবিধান ও প্রচলিত আইনে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় সমাজ পরিচালনার বিধি বিধান প্রচলিত রয়েছে। এতে সকল ধর্মালম্বী মানূষের সহাবস্থান, সার্বিক নিরাপত্তা ও অধিকারের বিষয়ে পরিষ্কার ভাবে উল্লেখ আছে। যেখানে ধর্মান্ধতা, উগ্রতা সহ যে কোন ধরনের উস্কানীমূলক তৎপরতা পরিহার প্রতিরোধের বিষয়ে সু’স্পষ্ট বিধি নিষেধের কথা বলা আছে। এ সব বিষয় মাথায় রেখে দেশের সকল স্তরের মানূষকে স্থানীয় প্রশাসন তথা থানা পুলিশের সহযোগিতায় সার্বক্ষনিক প্রস্তুতি রাখার ঘোষনা বিদ্যমান আছে। গত ২৫নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড পাহাড়িয়াখালী রাখাইনপাড়ায় কমিউনিটিং পুলিশের উদ্যোগে জনসচেতনতা মূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়। ওয়ার্ডের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এমইউপি’র সভাপতিত্বে অনুষ্টিত এ সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জয়নাল আবেদীন। প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ও.সি) জিয়া মোঃ মোস্তাফিজ ভুঁইয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন, পেকুয়া থানার ও.সি(তদন্ত) মোঃ মনজুরুল কাদের মজুমদার, বারবাকিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ এইচ এম বদিউল আলম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আবুল হোসেন শামা। এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় রাজনৈতিক, সামাজিক, পেশাজিবী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।