কক্সবাজার জেলা পরিষদের নির্বাচনে সদস্য পদে চকরিয়ায় ৭নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হচ্ছেন তরুন আইনজীবি জাহাংগীর আলম

908765.jpg

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া |
কক্সবাজার জেলা পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে সদস্য পদে চকরিয়া উপজেলার ৭নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হচ্ছেন আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান তরুন আইনজীবি এডভোকেট জাহাংগীর আলম। ইতোমধ্যে দলীয় মনোনয়ন চেয়ে কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের কাছে তিনি আবেদনপত্র জমা দিয়েছেন। আইন পেশার পাশাপাশি এডভোকেট জাহাংগীর আলম ৭নম্বর ওয়ার্ডের জনগনের আশা আকাঙ্খা এবং উন্নয়নের মাধ্যমে একটি স্বনির্ভর ওয়ার্ড বিনির্মানে প্রতিফলন ঘটতে জেলা পরিষদের নির্বাচনে সদস্য পদে প্রার্থী হবেন এমন অভিমত প্রকাশ করেছেন। ইতোমধ্যে তিনি নির্বাচনী এলাকার জনসাধারণ ও সম্মাণিত ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় এবং গনসংযোগ শুরু করেছেন।
তরুন আইনজীবি এডভোকেট জাহাংগীর আলমের বাড়ি চকরিয়া উপজেলার বৃহত্তর কাকারা ইউনিয়নে। বর্তমানে সুরাজপুর মানিকপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানপাড়া গ্রামে নতুন বাড়িতে বসবাস করছেন। পারিবারিকভাবে একটি স্বচ্ছ ও নির্ভেজাল আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান এডভোকেট জাহাংগীর আলম। তার প্রয়াত বাবা নুরুল হক চেয়ারম্যান ছিলেন বৃহত্তর কাকারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। ছিলেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক। তাঁর চাচা আজিমুল হক আজিম সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। দায়িত্বে আছেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক পদে। তাঁর নানা আলহাজ আনোয়ার হোসেন কন্ট্রাক্টর ছিলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের প্রবীণ নেতা এবং আগের কমিটির সহ-সভাপতি। এডভোকেট জাহাংগীর আলমের ছোট ভাই হাসান মুরাদ ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য। জাহাংগীর আলম দলীয় ভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের। ছিলেন ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক।
জানা গেছে, রাজনৈতিক ও সামাজিক ক্ষেত্রে এডভোকেট জাহাংগীর আলমের পরিবার তথা নুরুল হক চেয়ারম্যানের পরিবারটি কক্সবাজার জেলা এবং চকরিয়া উপজেলার আওয়ামীলীগের রাজনীতি অঙ্গনে একটি নিবেদিত পরিবার। এ পরিবারের সদস্যরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে তার সুযোগ্য উত্তরসুরী দেশরত্ম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের ঐক্যের প্রতি সবসময় অবিচল।
মুলত একটি স্বচ্ছ ও নির্ভেজাল আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান হিসেবে সামাজিক মুল্যবোধের কারনে ইচ্ছের প্রতিফলন ঘটাতে তরুন আওয়ামীলীগ নেতা এডভোকেট জাহাংগীর আলম অবহেলিত জনপদ আর জনগনের সেবা করতে বদ্ধপরিকর। এই চেতনা থেকে তিনি এবার অনুষ্টিতব্য কক্সবাজার জেলা পরিষদ নির্বাচনে চকরিয়া উপজেলার ৭নম্বর ওয়ার্ড (চকরিয়া পৌরসভা, লক্ষ্যাচর, কাকারা, চিরিঙ্গা ও সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়ন) থেকে সদস্য পদে প্রার্থী হওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন।
জানতে চাইলে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার অভিমত প্রকাশ করে তরুন আইনজীবি জাহাংগীর আলম বলেন, আমার পরিবারটি একটি রাজনৈতিক পরিবার। আমার প্রয়াত বাবা আজীবন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশ ধারণ করে গনমানুষের পাশে থেকে কাজ করেছে। আমার চাচা বর্তমান সুরাজপুর মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম দীর্ঘ ২০বছর ধরে জনগনের কল্যানে কাজ করছেন। পাশাপাশি দেশরত্ম প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত ভিশন বাস্তবায়নে আমার পরিবারটি সর্ব আগে ভুমিকা পালন করছেন। আমি ব্যক্তিগতভাবে আওয়ামীলীগের রাজনীতি করি। আমার ছোট ভাই হাসান মুরাদ ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের কার্যকরী কমিটির মেম্বার। তাই জনকল্যাণে আমার পরিবারের ত্যাগ এবং সামাজিক দায়িত্বাবোধ থেকে আমি সিদ্বান্ত নিয়েছি জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে ইনশাল্লাহ প্রার্থী হবো। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ড শুধুমাত্র চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেবেন এমন সিদ্বান্ত আগে থেকে জানিয়েছে। তারপরও কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের আহবানে অন্য প্রার্থীর মতো আমি সদস্য পদে মনোনয়ন চেয়ে আবেদনপত্র জমা দিয়েছি। আমি ছাত্রজীবন থেকে আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে বুকে ধারণ করে জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা ও বিশ^াস রেখে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছি। আশা করি আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে আমার পরিবারের ত্যাগ এবং আমাদের কর্মকান্ড বিবেচনা করে জেলা আওয়ামীলীগের নীতি নির্ধারক মহল আমাকে মনোনীত করবে। দলীয় মনোনয়ন পেলে ইনশাল্লাহ আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদি। সর্বশেষে আমি জেলা পরিষদের ৭নম্বর ওয়ার্ডের সকল কাউন্সিলর সহ দলীয় নেতাকর্মী এবং সর্বস্তরের জনগণের দোয়া, সমর্থন ও মূল্যবান রায় প্রত্যাশা করছি।