টেকনাফে স্বামীর নির্যাতনের শিকার সাবেকুন্নাহার বিচারের আশায় প্রসাশনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে

.jpg

আবুল কালাম আজাদ, টেকনাফ |
টেকনাফের সাবেকুন্নাহার স্বামীর নির্যাতন থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সঠিক বিচারের আশায় প্রসাশনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে টেকনাফ পৌরসভার পুরান পল্লান পাড়া গ্রামে। ঘটনার বিবরনে জানা যায়, সাবরাং ইউনিয়নের করাছি পাড়া গ্রামের মৃত জাফর আলম ড্রাইভারের কন্যা সাবেকুন্নাহার (২২) এর সাথে পৌরসভার পুরান পল্লান পাড়ার মোঃ শফির পুত্র জকির আলমের সাথে বিগত ৩/৪ বছর পূর্বে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। প্রথমে প্রথমে তাদের দাম্পত্য জীবন সুখের হলেও বিগত ৩/৪ মাস পূর্বে হতে যৌথক সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায় ঝগড়া বিবাদ হয়ে আসছে। স্ত্রী সাবেকুন্নাহার জানান তার স্বামী প্রায় সময় মোটা অঙ্কের যৌথক এনে দেওয়ার জন্য তাকে মারধর করত। সে অপারগতা প্রকাশ করলে তাকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে মারধর করে একটি কক্ষে তালা বদ্ধ করে রাখত। সকালে চলে গেলে রাতে এসে পুনরায় নির্যাতন শুরু করত। সে মোবাইল বা অন্যকিছু মারফত এ খবর কোথাও পাঠাতে পারতনা। অবশেষে গত ২৬/৯/২০১৬ ইং তারিখ স্থানীয় প্রতিবেশীর সহযোগিতায় সে নিজ বাপের বাড়ীতে চলে আসে। সে নারী নির্যাতন কোর্টে গিয়ে স্বামীকে প্রধান আসামী করে গত ২৩/১০/২০১৬ ইং তারিখ একটি মামলা রজুকরেন। যার তদন্ত টেকনাফ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কাছে মহামান্য আদালত সরজমিনে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য প্রেরণ করেছেন। যার সি পি নং ১৫৫৬ তারিখ ২৩/১০/২০১৬ ইং। এদিকে স্ব-চতুর স্বামী ইতি পূর্বে নারী নির্যাতন মামলা থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য তার স্ত্রী সাবেকুন্নাহারকে প্রধান আসামী করে মহামান্য ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে একটি ডাকাতি মামলা রজু করেছে। যার সি আর নং ২৮১/১৬ যা সরজমিনে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন প্রেরন করার জন্য উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন মহামান্য আদালত। এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় চলছে উত্তেজনা। অসহায় মহিলা সাবেকুন্নাহার সঠিক বিচারের আশায় প্রসাশনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে।###