শিশুর মেধা বিকাশে যা করবেন

2222_30136_1478675389.jpg

অনলাইন ডেস্ক |
আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যত। শিশুকে যত্ন নিয়ে সুস্থ ও সুন্দর পরিবেশের সুযোগ করে দিলে ভবিষ্যতে সে আদর্শ কর্মদক্ষ ও সুযোগ্য নাগরিক হবে। আগামীতে দেশ ও জাতিকে তারাইতো এগিয়ে নিয়ে যাবে।

শিশুদের মস্তিষ্ককে সক্রিয় এবং সতেজ রাখতে পারলে মেধাও বুদ্ধি বিকাশ ত্বরান্বিত হয়। এবং অনেক বেশি উন্নতি হয় বুদ্ধিমত্তার। আর এই মেধা ও বুদ্ধি বিকাশের জন্য আমাদের দরকার পরিমিত এবং পর্যাপ্ত পুষ্টিকর খাবার।

ইউরোপিয়ান জার্নাল ওফ নিউট্রিশনে (European Journal of Nutrition)- প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা যায়, ৬-৮ বছর বয়সী ১৬১ জন শিশুদের নিয়ে ফুড ডায়েরির মাধ্যমে খাবারের গুণগত মান ও সংগতিপূর্ণ পরীক্ষার মাধ্যমে তাদের শিক্ষাবিষয়ক মান বিশ্লেষণ করা হয়।

দেখা যায়, শিশুদের খাদ্যতালিকা শাকসবজি, ফল, বেরি জাতিয় ফল, শস্য, মাছ, আনস্যাচুরেটেড ফ্যাট ও কম শর্করা জাতীয় খাদ্য থাকে তাদের মেধা দ্রুত বিকশিত হয়। আর তাদেরই সমকক্ষ যারা অপেক্ষাকৃত নিম্নমানের খাবার খেয়েছিল, তাদের থেকে ওই শিশুদের পরীক্ষায় ভাল ফল পাওয়া যায়।

ইউনিভারসিটি অফ ফিনল্যান্ডের (University of Eastern Finland) গবেষক ইরো হাপালা (Eero Haapala) বলেন, খাদ্যের গুণগত মানসহ মেধার দক্ষ বিকাশের অনেকগুলি মিশ্রিত শর্ত রয়েছে, যেমন- আর্থ-সামাজিক অবস্থা, শারীরিক সক্রিয়তা, শরীরের স্থুলতা এবং শারীরিক সক্ষমতার ওপর সতন্ত্রভাবে নির্ভরশীল।

বাল্টিক সি ডায়েট এবং ফিনিশ নিউট্রিশন (Baltic Sea Diet and Finnish nutrition)-এর মতো খাবারের সুপারিশ- বেশি পরিমাণে শাকসবজি, ফল ও বেরী জাতীয় ফল, মাছ, গোটা শস্য ও আনস্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং কম মাত্রায় রেড মিট, শর্করা জাতীয় খাবার ও স্যাচুরেটেড ফ্যাট সমৃদ্ধ খাদ্যাভ্যাসকে স্বাস্থ্যসম্মত বলে মনে করা হয়।

শিশুদের শিক্ষা ও শিক্ষাসমন্ধিয় পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে, স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসকে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসাবে গণ্য করা হয়ে থাকে।