ফের সংকেতের ফাঁদে আটকা পড়েছে সেন্টমার্টিন ভ্রমণে আসা শতাধিক পর্যটক

Teknaf-pic2_saintmartin_4.11-Copy.jpg

নয়ন বর্মন, সেন্টমার্টিন থেকে ::

ফের সংকেতের ফাঁদে আটকা পড়েছে সেন্টমার্টিন ভ্রমণে আসা পর্যটকরা। ৩ নং সতর্ক সংকেতের কারনে শুক্রবার (৪ নভেম্বর) টেকনাফ-সেন্টমার্টিন রুটে চলাচলকারী জাহাজগুলো সেন্টমার্টিন না যাওয়ায় আগেরদিন গিয়ে থেকে যাওয়া প্রায় দু শতাধিক পর্যটক সেন্টমার্টিনে আটকা পড়ে। তবে আটকে পড়া পর্যটকদের ১শ ২৭ জনের মতো ৩টি ট্রলারে কয়েক দফায় টেকনাফে ফিরে আসে। তবে এখনও প্রায় শতাধিক পর্যটক সেন্টমার্টিনে রয়েছে বলে জানা গেছে।
সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান, বৃহস্পতিবার ২নং সংকেত চলাকালীন সংকেত আরও বাড়তে পারে এ আশংকায় হোটেল-মোটেল ও বাজারে পর্যটকদের সেন্টমার্টিন অবস্থান না করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে প্রচারনা চালানো হয়েছিল। তারপরও থেকে যাওয়া দুই শতাধিক পর্যটক শুক্রবার আটকা পড়ে।
সেন্টমার্টিন সার্ভিস বোট মালিক সমিতির কোষাধ্যক্ষ মোঃ জাহাঙ্গীর জানান, আটকা পড়া পর্যটকদের মধ্যে শুক্রবার সকালে ২টি ও বিকালে আরো ১টি ট্রলারে মোট ১২৭ জন টেকনাফে ফিরে যায়।
এদিকে সেন্টমার্টিন হোটেল মোটেল মালিক সমিতির সভাপতি মুজিবুর রহমান জানান, এখনো শ’খানেক পর্যটক বিভিন্ন হোটেল মোটেলে অবস্থান করছে।
উল্লেখ্য এর আগে গত ১১ অক্টোবর সংকেতের কারনে একই ভাবে জাহাজ চলাচল না করায় ৫ শতাধিক পর্যটক সেন্টমার্টিনে আটকা পড়েছিল। পরে ২ দিন পর সংকেত নেমে যাওয়ায় তারা ফিরে আসে। এই রুটে বর্তমানে কেয়ারী সিন্দবাদ, কেয়ারী ক্রুজ এন্ড ডাইন ও বে ক্রুজ নামে ৩টি জাহাজ চলাচল করছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শফিউল আলম জানান, আটকা পড়া পর্যটকদের যাতে কোন সমস্যা না হয় সে ব্যাপারে ইতিমধ্যে খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে এবং নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।