চকরিয়ায় শিপু হত্যা মামলার আসামী রিকন চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার

Rikon_cakoria.jpg

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া |
চকরিয়া উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নে ভুমি বিরোধের জেরে প্রবাসী যুবক হেলাল উদ্দিন শিপু খুনের মামলার এজাহারনামীয় দুই নম্বর আসামি সাবেক শিবির ক্যাডার সোহরাব মোস্তফা রিকনকে বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেফতার করেছে চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। এদিন দুপুরে চট্টগ্রাম জেলা জজ আদালতে ঘুরাফেরা করার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা ও কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জাকের হোসাইন মাহমুদ। গ্রেফতারকৃত রিকন চকরিয়া উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হোছাইন আহমদের ছেলে। প্রবাসী যুবক শিপু হত্যাকান্ডে মামলা রুজু হওয়ার পর থেকে পলাতক ছিলেন রিকন।
স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের কুতুবদিয়াপাড়া গ্রামে মামার পরিবারের ভূমি জবরদখলে বাঁধা দেয়ার জের ধরে ২০১৫ সালের ৩ নভেম্বর রাতে বাড়িতে ঢুকে আগুন লাগিয়ে দেয়ার পর গুলি করে প্রবাসী যুবক হেলালউদ্দিন শিপুকে হত্যা করা হয়।
এ ঘটনায় শিপুর মা ছকিনা বেগম বাদী হয়ে পরদিন ৪ নভেম্বর চকরিয়া থানায় প্রতিপক্ষের হামলাকারী লোকজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটিতে আসামি করা হয় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি বদরখালী সমবায় কৃষি উপনিবেশ সমিতির সাধারণ সম্পাদক একেএম ইকবাল বদরী, ভাই সাবেক চেয়ারম্যান হোসেন আহমদ ও হোসেন আহমদের ছেলে সাবেক শিবির ক্যাডার সোহরাব মোস্তাফা রিপনসহ অন্তত ৩০জনকে।
নিহত শিপুর মা ছকিনা বেগম জানান, জমির বিরোধ নিয়ে তার ছেলেকে খুনের ঘটনায় সরাসরি জড়িত সোহরাব মোস্তফা রিকন। ঘটনার রাতে এই রিকনই তার ছেলেকে গুলি করেছে। তিনি অভিযোগ করে জানান, বর্তমানে অভিযুক্ত অপরাপর আসামিরা তাকে মামলা তুলে নিতে নানাভাবে হুমকি ধমকি দি”েছন। অব্যাহত হুমকিতে তিনি চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন।

#