unnamed-10.jpg

হোয়াইক্যংয়ে জব্দ গর্জন গাছ

হোয়াইক্যং এ স’মিল থেকে মাদার ট্রি জব্ধঃ মামলা ধামাচাপা দিতে জোর তদবীর
জিয়াউল হক জিয়া,টেকনাফ।ছবি আছে
টেকনাফের হোয়াইকং এর একটি অবৈধ স’মিল থেকে বিপুল পরিমান মাদার ট্রি(গর্জন) কাঠ জব্দ করেছে বন বিভাগ। গতকাল ২৫ অক্টোবর দুপুরে হোয়াইক্যং এর আমতলী নামক গ্রামে অবৈধ ভাবে গড়ে উঠা একটি স’মিল থেকে এ চোরাই কাঠ উদ্ধার করা হয়।

হোয়াইক্যং বিট অফিস ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রইক্যং এলাকার আবুল কালাম নামক এক গাছ চোর হোয়াইক্যং এর কতিপয় প্রভাবশালীর ছত্রছায়ায় ২৪ অক্টোবর রাতে রইক্ষং বিটের আওতাধীন লম্বাবিলের সংরক্ষিত বন এলাকা থেকে বিশাল গর্জন গাছটি কেটে মোট তিন ভাগ করে করাত কলে চিরাই কাজ সম্পন্ন করতে রাতের অন্ধকারে নিয়ে আসে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হোয়াইক্যং রেন্জ অফিসারে নির্দেশে রইক্ষ্যং বিট অফিসার আবুল কালাম, সামাজিক বাগানের সভাপতি আবুল কাশেম (প্রকাশ টপ কাসীম)সহ কয়েকজন সংবাদ কর্মী সহ স’মিল এলাকায় গিয়ে প্রায় অর্ধ শতাধিক ঘনফুট চোরাই গর্জন কাঠ জব্দ করে। পরে গতকাল ২৫ অক্টোবর দুপুরে স্থানিয় বন কর্তৃপক্ষ স’মিল থেকে জব্দকৃত কাঠ হোয়াইক্যং রেন্জ অফিসে নিয়ে আসে।

এদিকে সরকারী বনজ সম্পদের মাদার ট্রি নিধনে জড়িতদের বাচাতে জোর তদবীর চালাচ্ছে একটি প্রভাবশালী চক্র।

হোয়াইক্যং বিট অফিসের সাথে যোগাযোগ করা হলে মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান।

তবে বিষয় টি ধামাচাপার তদবীর ও থেমে নেই বলে জানান এলাকাবাসী।