পেকুয়ায় জাতীয় মহিলা পার্টির সম্মেলনে হাজ্বী মো.ইলিয়াছ এমপি

pic-jatiyo-parti-26-10-16-.jpg

দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় নারীদের অংশগ্রহন নিশ্চিত করেছে বর্তমান সরকার

এস.এম.ছগির আহমদ আজগরী;পেকুয়া(কক্সবাজার)সংবাদদাতা:

পেকুয়ায় জাতীয় মহিলা পার্টির উপজেলা শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন ও সংবর্ধনা অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য জেলা জাপা সভাপতি আলহাজ¦ মুহাম্মদ ইলিয়াছ এম.পি বলেছেন, দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় নারীদের অংশগ্রহন নিশ্চিত করা হয়েছে। এ লক্ষে সরকার ও বিরোধীদল যৌথভাবে ব্যাপক ভুমিকা পালন করেছেন। নারীরা আজ শুধু উন্নয়ন নয় দেশ ও সমাজের সর্বক্ষেত্রের অগ্রযাত্রার অংশীদার। নারীদের পিছিয়ে রেখে দেশের অগ্রগতি ও সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। বিধায় বর্তমান সরকার ও বিরোধীদল স্বঃ স্বঃ অবস্থান থেকে নীতি আর আইনের পরিবর্তন পরিমার্জন ঘটিয়ে চলেছেন। এদেশে একসময় অবহেলিত ও নিষ্পেষিত ছিল নারীরা। এ নারীরা আজ সমাজে মাথা উচু করে দাঁড়াবার পরিবেশ পরিস্থিতি নিশ্চিতে পারদর্শীতা দেখানোয় প্রত্যন্ত অঞ্চলের মা বোনেরা আজকাল সর্বক্ষেত্রে অংশগ্রহন সক্ষমতা দেখাতে সক্ষম হচ্ছে। তাছাড়া পবিত্র ইসলাম ধর্মেও নারীদের মর্যাদা অধিকারের কথা উল্লেখ থাকায় বর্তমান সরকারের সমাজ ব্যবস্থায় তাও নিশ্চিত করেছেন। আইয়্যামে-জাহেলিয়াতে নারীরা ছিল অক্ষম। তারা ছিলেন দাসী। পুরুষ শাসিত সমাজ তাদেরকে অন্ধকারের মধ্যে নিপতিত করে। কিন্তু ইসলামের শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (স:) অন্ধকার ও ব্যাভিচার থেকে নারীদের রক্ষা করেন। তিনি দাস প্রথা বিলুপ্ত করে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের হকের মর্যাদা নিশ্চিত করেছিলেন। বিশ্বে আজ সব ক্ষেত্রে নারীরা অংশীদ্বার। নেতৃত্ব দিচ্ছেন নারীরা। এ সরকার নারীর অধিকার অধিক হারে মর্যাদা প্রতিষ্টা করেছেন। পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের শাসনামল থেকে নারীর অধিকার মর্যাদা বৃদ্ধির সূচনা করায় আজ দেশের মানূষ জাতীয়পার্টির দিকে জাতি দৃষ্টিপাত করেছেন। বাংলাদেশের অর্জন তার আমলে সবচেয়ে বেশি হয়েছে। গতকাল ২৬ অক্টোবর বুধবার দুপুরে জাতীয় মহিলা পার্টি পেকুয়া উপজেলা শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্টিত হয়েছে। এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ বক্তব্য দেন। উপজেলার বারবাকিয়া জেলি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত দ্বি বার্ষিক সম্মেলন ও সংবর্ধনা অনুষ্টান সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলা জাতীয় মহিলা পার্টির আহবায়ক আমাতুর রহিম হীরার সভাপতিত্বে অনুষ্টিত ওই সম্মেলনে উদ্ভোধক ছিলেন জাতীয় মহিলা পার্টি কক্সবাজারের সভাপতি ও সংরক্ষিত আসনের নারী সাংসদ আলহাজ¦ খোরশেদ আরা হক এম.পি, প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা জাতীয় মহিলা পার্টির সাধারন সম্পাদক আসমাউল হুসনা, বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক মুফিজুর রহমান, সহ-সভাপতি মোবারেক হোসেন দুলাল, অর্থ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, জাপা নেতা মোঃ নাজেম উদ্দিন ও জেলা জাতীয় পর্র্টির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সাজেদা হক ও ডুলহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন। এছাড়া, বক্তব্য রাখেন- পেকুয়া উপজেলা জাপা সভাপতি মাহবুব ছিদ্দিকী, সি.সহ-সভাপতি সাংবাদিক এম.দিদারুল করিম, সাধারন সম্পাদক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক বিডিআর(অবঃ) মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, যুগ্ম সম্পাদক সাজ্জাদুল ইসলাম, জাপা নেতা হাজ¦ী বদিউল আলম, জাপা নেত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস, দিলোয়ারা বেগম, শাহেনা বেগম, তাহেরা বেগম ও পেকুয়া উপজেলা জাতীয় ছাত্র সমাজের আহব্বায়ক মোঃ আরমান প্রমুখ। সম্মেলনে পূর্বের কমিটির আহবায়ক আমাতুর রহিম হীরাকে জাতীয় মহিলা পার্টি পেকুয়া উপজেলা শাখার সভাপতি ও মোমেনা সোলতানা ছুট্টুকে সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। দিলোয়ারা বেগম সহ সভাপতি, জন্নাতুল ফেরদৌস ও তাহেরা বেগমকে যুগ্ম সম্পাদক ঘোষনা করা হয়েছে। এদিকে কক্সবাজার জেলা জাতীয় পার্টির নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে ওইদিন সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।