জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নিহত

index-1.jpg

জয়পুরহাটের সদর উপজেলায় হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সাফিনুল ইসলাম ওরফে সাফিন (২৯) র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছে।

র‌্যাবের দাবি, নিহত সাফিনের বিরুদ্ধে ছয়টি হত্যাসহ মোট ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে একটি হত্যা মামলায় তাকে ফাঁসির দণ্ড দেয়া হয়েছিল। এ মামলায় দীর্ঘদিন পলাতক ছিল সাফিন।

মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার দাদরা-জন্তি গ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত সাফিনুল ইসলাম ওরফে সাফিন জেলার জয়পুরহাট পৌর এলাকার দক্ষিণ দেওয়ান পাড়া মহল্লার নজরুল ইসলামের ছেলে।

র‌্যাব-৫ জয়পুরহাটের ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর হাসান আরাফাত জানান, শীর্ষ সন্ত্রাসী সাফিন তার সহযোগীদের নিয়ে উপজেলার দাদরা-জন্তি গ্রাম এলাকায় অবস্থান করছে গোপন সূত্রে এ খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল সেখানে যায়।

র‌্যাব সদস্যরা ওই গ্রামের মামুন পেট্রোল পাম্পের কাছে পৌঁছালে টের পেয়ে সন্ত্রাসী সাফিন ও তার সহযোগীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে সন্ত্রাসী সাফিন গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হলে তার অপর সহযোগীরা পালিয়ে যায়।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত সাফিনের বিরুদ্ধে ছয়টি হত্যাসহ মোট ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে একটি হত্যা মামলায় তাকে ফাঁসির দণ্ড দেয়া হয়েছিল বলে জানান অধিনায়ক মেজর হাসান আরাফাত।