আলোর দিশারী প্রিয় নুর মোহাম্মদ স্যার

nur-mohammad.jpg

সাইফুল ইসলাম::
কোন একজন ব্যক্তি প্রত্যেকের প্রিয় হতে পারে না। বিশেষ ক্ষেত্রে প্রত্যেকের একজন বিশিষ্ট প্রিয় ব্যক্তি থাকে। তদ্রুপভাবে আমার প্রিয় ব্যক্তির মধ্যে অন্যতম একজন হলো শ্রদ্ধেয় নুর মোহাম্মদ স্যার। যিনি শিক্ষকতা জীবনের যবনিকা টেনে অবসর জীবনে চলে যাচ্ছেন। শুনে মনের মধ্যে কি যেন শূণ্যতা বিরাজ করছে যা বলা বাহুল্য। আমি হারাচ্ছি প্রিয় ব্যক্তিকে আর টেকনাফ তথা এতদাঞ্চলের মানুষ হারাচ্ছে অন্ধকারে আলোর দিশারীকে প্রিয় অভিভাবকে। যিনি শিক্ষা দীক্ষায় একসময় পিছিয়ে থাকা টেকনাফকে আলোকিত করেছেন তার মেধা,শ্রম ও শিক্ষার আলো দিয়ে। শিক্ষক হিসেবে অত্যন্ত সৎ চরিত্রের অধিকারী মানুুষটি ব্যক্তিগত জীবনে অত্যন্ত সাদাসিদে মনের অধিকারী ছিলেন। শিক্ষকতা জীবনে তিনি টেকনাফ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বও পালন করেছেন অনেকদিন। তিনি আমাদের গণিতের শিক্ষক ছিলেন। আবার গণিতের পাশাপাশি বিজ্ঞান বিষয়ে তাঁর জ্ঞান ছিল অতুলনীয়।তাঁর পড়াশোনার পদ্ধতি ছিল অত্যন্ত সহজ ও আকর্ষণীয়। শ্রেণি কক্ষে তাঁর উপস্হিতি আমাদের সকলকে পাঠের প্রতি মনোযোগী করে রাখতো। তাঁর বিষয়বস্তুর বিশ্নেষণ,তত্ত্ব ও সমস্যার ব্যাখ্যা উপলব্ধি করার ক্ষমতা ছিল অদ্ভুদ। তিনি আমাদের অতি সংস্পর্শে এসে আমাদের বিষয়ভিক্তিক সমস্যাগুলো জানার চেষ্টা করতো। বিভিন্ন গুণের অধিকারী মানুষটি আমাদের হৃদয়ে সবসময় মর্যাদার মসনদে আসিন হয়ে থাকবে। তিনি মুক্ত, উদার ও ছাত্রদের প্রতি সবসময় সহযোগী। তিনি শিক্ষার্থীদের চাহিদা সহজে বুঝতে পারতেন এবং তদানুসারে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান করতেন। তাঁর ব্যক্তিত্ব ও মানবীয় গুণাবলির জন্যে তিনি আমাদের তথা টেকনাফের সকল শ্রেণির মানুষের মাঝে স্হান করে নিয়েছেন। আজীবন টেকনাফের ছাত্রসমাজ ও তাদের অভিভাবকগণের কাছে শ্রদ্ধা ও সম্মানের পাত্র হয়ে থাকবেন এই আশা রাখি।