দিন শেষে আক্ষেপ মুশফিক

file-2.jpeg

স্পোর্টস ডেস্ক |
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে ৫ উইকেটে ২২১ রান করেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। তবে দিন শেষে বাংলাদেশের জন্য আক্ষেপ অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের উইকেটটি।

দিনের খেলা শেষ হতে যখন মাত্র ২ দশমিক ৩ ওভার বাকি ঠিক তখনই উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

শনিবার সাকিব আল হাসান এবং শফিউল ইসলাম নতুন করে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করতে মাঠে নামবেন। সাকিব ৩১ এবং শফিউল ০ রানে অপরাজিত আছেন।

এর আগে শুক্রবার সকালে ইংল্যান্ড ২৯৩ রানে গুটিয়ে গেলে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ।

ইমরুল কায়েস এবং তামিম ইকবালের ওপেনিং জুটিতে আসে ২৯ রান। ইমরুল কায়েস মঈন আলীর বলে ২১ রানে আউট হন। এরপর প্রায় ১৪ মাস পর জাতীয় দলের জার্সিতে খেলতে নামা মুমিনুল হক সৌরভ কোনো রান না করেই ওই ওভারেই আউট হন।

এতে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। তবে ওপেনার তামিম ইকবাল ও বাংলাদেশের ‘দ্য ওয়াল’ খ্যাত মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় স্বাগতিকরা। দুইজন মিলে গড়েন ৯০ রানের জুটি। দলকে খেলায় ফেরান তারা।

তবে ৩৮ রান করা রিয়াদকে সাজঘরে ফেরান রশিদ। রিয়াদ ফিরলেও ধৈর্য নিয়ে খেলে দলের জন্য প্রয়োজনীয় রান তোলার পাশাপাশি অর্ধশতকও তুলে নেন তামিম ইকবাল। অধিনায়ক মুশফিকের সঙ্গে গড়েন ৪৪ রানের মূল্যবান জুটি।

তামিমের ব্যাটিং স্টাইল দেখে মনে হচ্ছিল তার ইনিংসটা আরও বড় হবে। কিন্তু ৭৮ রানে ফিরে যান তামিম। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলছিলেন মুশফিক। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে ৫৮ রানের জুটি গড়েন তিনি। তবে ব্যক্তিগত ৪৮ রানে গিয়ে সতর্কভাবে খেলতে থাকা মুশফিক উইকেটের পেছনে স্টোকসের বলে ক্যাচ দেন। দিনের খেলা শেষ হতে মাত্র আড়াই ওভার বাকি ছিল। ১৫টি বল পার করতে পারলেই শনিবার সকালে আবারও নতুন করে ব্যাট করতে পারতেন মুশফিক।

এরআগে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক। ব্যাট করতে নেমে টাইগারদের মায়াবী ঘূর্ণিতে প্রথম ইনিংসে ২৯৩ রানে অলআউট হয় তারা।

টাইগারদের হয়ে অভিষেক হওয়া মেহেদী হাসান মিরাজ একাই নেন ৬ উইকেট। এছাড়া সাকিব ও তাইজুল ২টি করে উইকেট লাভ করেন।