৬দিন পর সচল টেকনাফ স্থল বন্দর : মিয়ানমার থেকে এসেছে পন্য বোঝাই ৩টি ট্রলার

Bondor-pic_jahaj.jpg

মোঃ আশেক উল্লাহ ফারুকী |
মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যে বিজিবি ক্যাম্পে হামলার ঘটনায় টেকনাফ স্থল বন্দরের কার্যক্রম ৬দিন বন্ধ থাকার শনিবার থেকে পুনরায় চালু হয়েছে। ১৫ অক্টোবর শনিবার মিয়ানমার থেকে পন্য বোঝাই ৩টি ট্রলার টেকনাফ স্থল বন্দরে প্রবেশ করে।
টেকনাফ স্থল বন্দর পরিচালনাকারী ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট এর ব্যবস্থাপক আবু নুর মোহাম্মদ খালেদ জানান, সকালে শুটকি ও আচার নিয়ে ২টি ট্রলার বন্দরে ভীড়ে অপরদিকে দুপুরের দিকে চিংড়ি মাছ নিয়ে আরো একটি ট্রলার বন্দরে প্রবেশ করেছে।
মিয়ানমার থেকে পন্য বোঝাই ট্রলার আসার পর আবারও ব্যস্ত হয়ে উঠেছে টেকনাফ স্থল বন্দর। তবে এদিন মিয়ানমারে কোন পন্য রপ্তানী হয়নি।
টেকনাফ স্থল বন্দর কাস্টমস কর্মকর্তা আব্দুল মন্নান জানান, ইতিমধ্যে আমদানীকৃত পন্যের সিএন্ডএফ এজেন্ট এসএমসি এন্টারপ্রাইজ ও জিন্নাহ ব্রাদার্স শুটকি ও আচারের আইজিএম জমা করেছে।
অপরদিকে চিংড়ির আমদানীকারক জিয়া এন্টাপ্রাইজ বলে জানা গেছে।
এদিকে টেকনাফ স্থল বন্দর ইমিগ্রেশন এখনও স্বাভাবিক হয়নি। শুরু হয়নি ব্যবসায়ীদের আসা যাওয়া। তবে দুদেশে আটকে পড়া ব্যবসায়ীসহ ২৪৭ জন উভয় দেশের নাগরিকের আসা যাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে মিয়ানমার থেকে ফেরত এসেছে ২০ বাংলাদেশী আর মিয়ানমারে ফেরত গেছে ১৪৭ জন। ইমিগ্রেশন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, মিয়ানমারের আটকে পড়া ১৪৭ জন ফিরে যাওয়ার পর আর কেউ ফেরার জন্য ইমিগ্রেশনে রিপোর্ট করেনি।