টেকনাফে কৃষকদের প্রশিক্ষণ অনুষ্টিত

.jpg

জসিম উদ্দিন টিপু, টেকনাফ::
টেকনাফে কৃষক-কৃষাণীদের কৃষি এবং জীবনমান উন্নয়নে পুষ্টি-খাদ্য নিরাপত্তা-নিরাপদ খাদ্যের উপর “কৃষক প্রশিক্ষণ” দেওয়া হচ্ছে। সমন্বিত কৃষি উন্নয়নের মাধ্যমে পুষ্টি ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণটি দেওয়া হচ্ছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অর্থায়ানে টেকনাফস্থ কৃষি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ২দিন ব্যাপী এই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক কৃষিবিদ আ.ক.ম শাহারিয়ার। ১৫অক্টোবর সকালে শুরু হওয়া প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে অংশ নেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ ডক্টর শহিদুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: শহিদুল ইসলাম। এতে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কর্মরত উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। ৬ইউনিয়ন এবং পৌরসভার বাছাইকৃত ৬০কৃষকদের প্রশিক্ষণটি দেওয়া হচ্ছে। প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিবিদ আ.ক.ম শাহারিয়ার বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা এবং নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে আজ নিজেরাই যথেষ্ট। বাড়ির আঙ্গিনায় বেড তৈরীর মাধ্যমে জৈব পদ্ধতিতে শাক-সবজি¦ উৎপাদন করে পুষ্টির চাহিদা মেটাতে হবে। “দেশী ফলের বেশী চাষ-পুষ্টি ও তুষ্টি পাবেন বার মাস” এই কথা মনে করিয়ে দিয়ে তিনি পুষ্টির সমস্যা সমাধানে কৃষকদের ভুমিকার উপর গুরুত্বারোপ করেন। বছরে ২বার জৈব সার এবং রোপিত গাছের চারা নিয়মিত পরিচর্যা করলে গাছ সুন্দর এবং ফলন ভাল দেওয়ার ম্যাসেজটি প্রশিক্ষর্ণীদের মাধ্যমে গ্রামীণ কৃষকদের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, নিজেরাই নিজেদের খাদ্য পরিকল্পিতভাবে তৈরী করতে হবে।