সেন্টমার্টিনে আটকা দেড়’শ পর্যটক সুষ্ঠ রয়েছে

saintmartin-pic_44.jpg

ফাইল ছবি

৩ নং সর্তক সংকেত বহাল : জাহাজ চলাচল বন্ধ
জাবেদ ইকবাল চৌধুরী |
বৈরী আবহাওয়ার কারনে দু’দিন ধরে সেন্টমার্টিন-টেকনাফ জাহাজ চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে সেন্টমার্টিনে আটকা রয়েছে প্রায় দেড় শতাধিক পর্যটক। ১১ আক্টেবর মঙ্গলবার সকালে টেকনাফ থেকে কোন পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল না করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তবে এ নিয়ে কোন দূর্ভোগ যাতে সৃষ্টি না হয় সে বিষয়ে সর্তক রয়েছে প্রশাসন। টেকনাফ উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোঃ সফিউল আলম জানান, টেকনাফ উপকূলে মঙ্গলবার থেকে ৩ নম্বর কর্তক সংকেত জারি রয়েছে। বুধবারও এখই অবস্থা বিরাজ করছে। এ পরিস্থিতিতে পর্যটকদের সুবিধার্থে ইতিমধ্যে থাকার হোটেল ফ্রি করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে বেশ কিছু ছাত্র রয়েছে। তাদের খাবারেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পর্যটকরা ফিরে আসতে পারবেন বলেও তিনি আশা ব্যক্ত করেন।
এদিকে সেন্টমাটিনের “ব্লু মেরিন” হোটেলে অবস্থান করা ঢাকা মিরপুর এলাকার বাসিন্দা সায়েম মিয়া ও “সীমানা পেরিয়ে” রির্সোটে আবস্থান নেওয়া উত্তরা এলাকার বাসিন্দা রিদোয়ান জানান, গত সোমবার তারা পরিবার নিয়ে সেন্টমার্টিন পৌঁছেন। মঙ্গলবার ফিরে যাওয়ার কথা। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারনে জাহাজ চলাচল বন্ধ রয়েছে। তাই উৎকন্ঠায় রয়েছে বলেও জানান তারা।
কেয়ারী সাভিসেস এর ব্যবস্থাপক মো ঃ শাহ আলম জানিয়েছেন, এমনি দেরিতে জাহাজ চলাচল শুরু হয়। এরপর বেশ জমে উঠেছিলো সেন্টমার্টিন কেন্দ্রীক পর্যটন ব্যবসা। বুকিং ও ছিলো। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারনে তা আর হলো না। দু দিন ধরে জাহাজ চলাচল বন্ধ আছে। ফলে আটকা পড়েছে বেশ কিছু পর্যটক। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সেন্টমার্টিন গিয়ে তাদের নিয়ে আসা হবে বলেও তিনি জানান।