খাদিজার অবস্থা অপরিবর্তিত, তবু আশাবাদী চিকিৎসকরা

khadija_26870_1475651726.jpg

অনলাইন ডেস্ক |
সিলেটে শাহাজালাল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমের চাপাতির আঘাতে গুরুতর আহত কলেজছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি।

রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে খাদিজার মস্তিষ্কে দ্বিতীয় দফা অস্ত্রোপচারের পর জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন তিনি।

বুধবার হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অস্ত্রোপচারের পর খাদিজার শারীরিক অবস্থার তেমন কোনো উন্নতি নেই। তার অবস্থা সংকটাপন্ন, তবে তারা এখনো আশাবাদী।

উন্নত চিকিৎসার জন্য খাদিজাকে বিদেশে নেয়া সম্ভব কি না এমন প্রশ্নের জবাবে স্কয়ারের মেডিসিন অ্যান্ড ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিভাগের কনসালট্যান্ট ড. মির্জা নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘বিদেশে নেওয়ার মতো অবস্থায় নেই খাদিজা।’

এর আগে মঙ্গলবার অস্ত্রোপচারের পর ৭২ ঘণ্টার মধ্যে খাদিজার বিষয়ে কিছু বলা যাবে না বলে মন্তব্য করেছিলেন স্কয়ার হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

গত সোমবার বিকেলে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রী ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী নার্গিস বেগম খাদিজার (২৩) উপর হামলা চালায় শাহাজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শেষবর্ষের ছাত্র ও শাবি ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল ইসলাম। এসময় চাপাতি দিয়ে উপর্যুপুরি কুপিয়ে খাদিজাকে গুরুতর আহত করেন।

পরে হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতা বদরুলকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন স্থানীয় জনতা।

এ ঘটনায় বদরুলকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করেছে।