“হোয়াইক্যংয়ে পুলিশ কনেস্টেবলের রাজকীয় বিয়ে” শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ

protibad2.jpg

গত ২৮ সেপ্টেম্বর অনলাইন নিউজ পোর্টাল টেকনাফ টুডে ডটকম, কালের কন্ঠ অনলাইন ও আজকের দেশবিদেশ পত্রিকায় প্রকাশিত “হোয়াইক্যং এ পুলিশ কনেস্টেবলের রাজকীয় বিয়ে” শীর্ষক সংবাদটি আমার দৃষ্ঠিগোচর হয়েছে।

উক্ত সংবাদের প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি বাস্তব অবস্থা তুলে ধরা প্রয়োজন বলে মনে করছি।

আমার পারিবার নয়াবাজারের ঐতিহ্যবাহী সিকদার পরিবার এবং আমার নানা নীলার হাজী নছিম একজন সুপরিচিত ব্যক্তি। হ্নীলা স্টেশনে হাজী নছিম মার্কেট বলতে একনামে সবাই চিনে এছাড়া পানখালী এলাকায় তার সম্পদের ব্যাপারের সবাই অবগত আছেন।
সেই প্রসিদ্ধ ব্যক্তির নাতী হয়ে আমার বিয়ে তাও বরযাত্রীহীন আবার তা হয়ে গেল রাজকীয় এইধরনের সংবাদ হাসির খোরাক জোগায়।

বস্তুত পক্ষে এলাকার কিছু লোক আমাদের পারিবারিক জমি সংক্রান্ত বিষয়ে অতি উৎসাহিত হয়ে আমাদের বাবা চাচাদের মধ্যে বিরুধ সৃষ্ট করে যা নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান, সাবেক মেম্বার, জালাল মেম্বার হয়ে অতঃপর থানায় উভয়ের ২/৪ টি মামলা। আর এসবের কারনে আমি ইয়াবা ব্যাবসায়ী, দু’তলা বাড়ীর মালিক।

২০০৭ হইতে ২০০৯ পর্যন্ত আমার মা এর পৈতৃক সম্পত্তি হতে প্রাপ্ত প্রায় ৮০ শতক (২ খানী) জমি বিক্রি করে নীলা কৃষি ব্যাংক এর পেছন হতে যার মূল্য কত এবং এই টাকা নিয়ে কয়টা বর্তমান বাড়ির মত বাড়ি করা যাবে ষড়যন্ত্রকারীরা ভাল জানে।

সাংবাদিক ভাইকে করজোড়ে বলব, যাচাই-বাছাই করে সংবাদ প্রচার করার জন্য। একটি গেইট এবং ১টি গরু নিয়ে মেজবান করলে রাজকীয় হয়না। চট্টগ্রামে এখনো মেজবান হলে আত্মীয়রা যে শরীক হয় তা বোধ হয় ভাল জানেন। আমি এই ধরনের বাছবিচারহীন সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।

মোঃ হারুন।
নয়াবাজার, হোয়াইক্যং।