ভূমিহীনদের পূর্ণবাসনে উখিয়ায় হচ্ছে গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প

6666.jpg

কায়সার হামিদ মানিক, উখিয়া |
উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের অবেহিলত এলাকা উত্তর বড় বিল গ্রামের গুচ্ছ গ্রাম বা আবাসন প্রকল্প গড়ে তুলার পরিকল্পনা নিয়েছেন সরকার। ছিন্নমূল ও ভূমিহীন লোকদের পুর্ণবাসন করার লক্ষ্যে জাতীয় আবসন প্রকল্প এ কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। উক্ত গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে অবেহিলত এলাকায় আমুল পরিবর্তন সহ যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন সাধিত হবে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সরজমিন পরিদর্শনে জানা যায়, উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের সবচেয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা অনুন্নত ও অবেহিলত এলাকার নাম হচ্ছে দক্ষিন বড় বিল গ্রাম। এ গ্রামের হাজার হাজার লোক স্বাধীনতার পর থেকে বিদ্যুৎবিহীন রয়েছে। নেই কোন যোগাযোগ ব্যবস্থা। এমন একটি দুর্গম জনপদে গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প গড়ে তুলতে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী বলেন, আশ্রয় প্রকল্প বর্তমান সরকারের অন্যতম একটি জনহিতকর উদ্যোগ। ওই এলাকায় গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে ছিন্নমূল মানুষের আবাস স্থানের সুযোগের পাশা-পাশি অবেহিলত উত্তর বড়বিল গ্রামে উন্নয়নে আলোর পথ খুঁজে পাবে। এ এলাকায় গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প হচ্ছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসীর মাঝে আনন্দের উচ্ছাস ভয়ে চলছে। তারা মনে করে এ আবাসান প্রকল্পে শত শত ভূমিহীন গরীব লোকজনের পূর্ণবাসনের সুযোগ সৃষ্টি হবে। বিশিষ্ট শিক্ষাবীদ ও ব্যবসায়ী আজিজুল হক বলেন, উত্তর বড়বিল গ্রামটি যুগযুগ ধরে অবেহিলত ও উন্নয়বঞ্চিত। গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়নে ইতিমধ্যে ন্যাশনাল গুচ্ছগ্রাম প্রকল্প কার্যালয় কাজ শুরু করেছেন। গ্রামের বিশিষ্ট শিক্ষক মোঃ শফিকুর রহমান জানান, উত্তর বড় বিল গ্রামটি দীর্ঘ বছর ধরে অবহেলায় জর্জরিত। গ্রামটি কৃষি প্রধান হলেও বেশি ভাগ মানুষ শ্রমজীবি, ভূমিহীন ও গৃহহীন। বাড়ী ঘর না থাকায় খুব কষ্ট হবে পরিবার পরিজন নিয়ে দিনযাপন করছে দরিদ্র পরিবার গুলো। তিনি বলেন, পাগলির বিল মৌজা সরকার নামীয় খাস জায়গায় গুচ্ছ গ্রাম গড়ে উঠলে হতদরিদ্র পরিবারের পুর্ণবাসনের পাশা-পাশি এলাকারও অভুতপূর্ব উন্নয়ন হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাঈন উদ্দিন, হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলম, ভূমি অফিসের তহশীলদার আব্দুল করিম, সার্ভেয়ার, কাননগোসহ একটি প্রতিনিধি দল পৃথক পৃথক উত্তর বড়বিল চিতাখলা নামক স্থানে প্রস্তাবিত গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলম বলেন, উত্তর বড়বিল চিতাখলা নামক স্থানে গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প গ্রহণে সম্ভাব্য যাচাই ও পরিদর্শন করা হয়েছে। ছিন্ন মূল ও ভূমিহীন মানুষের আবাসস্থল নিশ্চিত করতে ১০ একর জায়গায় আবাসন প্রকল্প গড়ে তুলার জন্য লিখিত সুপারিশ সহ প্রস্তাব উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, স্থানীয় জনগণের লিখিত আবেদন ও হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের সুপারিশক্রমে উপজেলা প্রশাসন জাতীয় গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্পে প্রেরন করা হয়। স্থানীয় সচেতন নাগরিক সমাজ দ্রুত সময়ে সরকারী বনবিভাগের পরিত্যক্ত জায়গায় গুচ্ছ গ্রাম গড়ে তুলে ভূমিহীন মানুষকে আশ্রয় দেওয়ার জন্য সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিকট জোর দাবী জানিয়েছেন।