উখিয়ায় স্কুল ছাত্রীকে নির্যাতন প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন

432567.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি, উখিয়া |
উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের মোঃ শফির বিল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মৌলভী আক্তারের হাতে একই স্কুলের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী রাশেদা আক্তার (১০) বেদম প্রহারের শিকার হয়েছে। তাকে মূমর্ষ অবস্থায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে প্রধান শিক্ষকের শাস্তির দাবীতে রাশেদা আক্তারের সহপাঠি ও এলাকাবাসীরা এক বিশাল মানব বন্ধন করেছে।
জানা যায়, উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের মোঃ শফির বিল এলাকার আমির হামজার ১০ বছরের মেয়ে ৫ম শ্রেণির ছাত্রী রাশেদা আক্তার ২৮ সেপ্টেম্বর মোঃ শফির বিল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়মিত ছাত্রী হিসেবে ক্লাসে যায়। স্কুল টিফিন ছুটি হলে সে বাড়ি থেকে আসতে দেরী হওয়ায় স্কুলে প্রবেশ করা মাত্র প্রধান শিক্ষক মোলভী আক্তার হোসেন তার ক্লাস রুমে গিয়ে হাত ও বেত দিয়ে তাকে বেদম মারধর করে। প্রহারের এক পর্যায়ে স্কুল ছাত্রী রাশেদা অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায়। পরে স্কুলের ছাত্র ছাত্রীরা স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলম কোম্পানি কে খবর দিলে তাকে প্রথমে ইনানী উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। ইনানী উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক স্কুল ছাত্রী রাশেদা আক্তারের অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। এ প্রসঙ্গে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মৌলভী আক্তার হোসেন কাছ থেকে জানতে চাইলে, তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। এলাকাবাসীর অভিযোগ শুধু রাশেদা আক্তার নয়, এই স্কুলের ইতিহাসে এরকম অসংখ্য ঘটনা ঘটেছে। যার কোন সুরহা এখনও পর্যন্ত হয়নি। সংশ্লিষ্ট স্কুল পরিচালনা কমিটির অবহেলার কারণে একজন শিক্ষক বার বার এধরনের ঘটনার জন্ম দিয়ে যাচ্ছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ শামীম ভ’ইয়া বলেন, এ ধরনের ঘটনা আমি শুনেছি তদন্ত পূর্বক শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।