বিদেশ থেকে লবন আমদানি করায় দেশীয় লবন চাষি হতাশ হলেও বাজারে লবনের দাম আকাশ ছোঁয়া

bag-solt_224811.jpg

আবুল কালাম আজাদ, টেকনাফ |
দেশে ইদানিং লবনের মারাতœক সংকট দেখা দিয়েছে। ফলে সরকার উপলদ্ধি করতে পেরে বানিজ্য মন্ত্রনালয় প্রথম ধাপে এক লক্ষ মেট্রিক টন লবন আমদানি করেছে। এই নিয়ে দেশীয় লবন চাষিরা হতাশ হলেও কিন্তু বাজারে লবনের দাম আকাশ ছোঁয়া। যা নিম্ন বিত্ত ও মধ্যবিত্ত লোকজনের নাগালের বাইরে। এই জন্য সাধারণ লোকজন দেশীয় লবন উৎপাদন না হওয়া পর্যন্ত আমদানি অব্যাহত রাখার জন্য বানিজ্য মন্ত্রনালয়কে অনুরোধ জানিয়েছে। পাশাপাশি আমদানি করায় সাধুবাদ জ্ঞাপন করেছে। সাম্প্রতিক সময়ে লবনের সংকট ও দাম বৃদ্ধির কারনে গেল পবিত্র কোরবানে চামড়া ব্যবসায়ীগন বিপুল পরিমান লোকসান গুনেছে। এ ছাড়া চলমান শুটকী মৌসুমে লবনের দাম বাড়ায় প্রতিনিয়ত শুটকী ব্যবসায়ীগন লোকসান গুনছেন। শুটকী ও চামড়া ব্যবসায়ীগন জানিয়েছেন লবনের দাম স্বাভাবিক পর্যায়ে না আসলে চড়া দামে লবন কিনে আমাদের ব্যবসা চালানো সম্ভব নয়। ব্যবসা না করে বসে থাকতে হবে। ফলে শত শত পরিবার এর সাথে জড়িত ব্যক্তিবর্গ অনাহারে অর্ধহারে দিন যাপন করতে হবে। এদিকে বাজার পরির্দশনে দেখা যায়, আযোডিন প্যাকেট জাতকরন প্রতি কেজি ৪০ টাকা এবং খোলা লবন ২০/২৫ টাকায় বিক্রয় হচ্ছে। যা অতীতের মূল্যবৃদ্ধির রেকর্ডকে হার মানিয়েছে।