ঘুমধুমের সিমান্তে মাদক চালানের স্পটে পুলিশের অভিযান : ৬ হাজার ইয়াবাসহ ৫ মিয়ানমার নাগরিক আটক

images-‍a-yy.jpg.jpg

শামীম ইকবাল চৌধুরী, নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান)থেকেঃঃ
পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর তথ্য অনুযায়ী গত শনিবার সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত সিমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। গত ২৪ সেপ্টম্বার (শনিবার) সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত এ অভিযান চালায়। অভিযান চলাকালে রাতে আধাঁরে মায়ানমারের ৫ নাগরিক সীমান্ত অতিক্রম করে ঘুমধুমের বেতবুনয়িা-কচুবনিয়া স্কুল এলাকায় পৌছলে ৬হাজার ইয়াবাসহ পাচঁ মিয়ানমার নাগরিককে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। আটককৃতরা হলো- মিয়ানমারের মংডু হারিপাড়া এলাকার সোলেমানের ছেলে আমির হোসেন (৩৮), মো: তাহেরের স্ত্রী মিনারা বেগম (২৫), সিকদারপাড়া এলাকার আব্দুল জাব্বারের স্ত্রী আমেনা খাতুন (৩৮), বমুপাড়া এলাকার মো: ইউনুছের স্ত্রী মাজিদা বেগম (৩৮) ও মগনিপাড়া এলাকার মৃত আবুল কালামের স্ত্রী নুর বানু (৫৫)। তাদের বিরুদ্ধে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় অবৈধ অনুপ্রবেশ আইন ও মাদকদ্রব্য আইনে মামলা করেছে পুলিশ।
থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাতে মিয়ানমারের পাচঁ নাগরিক সীমান্ত অতিক্রম করে ঘুমধুম বেতবুনয়িা-কচুবনিয়া স্কুল এলাকায় পৌছলে ঘুমধুম পুলিশ ফাঁির সদস্যরা অভিযান চালায়। এসময় তাদের দেহ তল্লাসী করে ৬হাজার পিচ ইয়াব বডি উদ্ধার করা হয়। পরে আটকৃতদের নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় স্থানান্তর করে তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য ও অবৈধ অনুপ্রবেশ আইনে (মামলা নং-৮) দায়ের করেছে ঘুমধুম পুলিশ ফাড়িঁ ইনচার্জ এসআই এরশাদ উল্লাহ। অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তৌহিদ কবির। সিমান্তে এসব অভিযান অব্যহত থাকবে বলেও তৌহিদ কবির এ প্রতিবেদককে জানান।