হ্নীলায় স্বামীর অজান্তে ইয়াবার চালান নিয়ে ঢাকায় স্ত্রী

PP.jpg

জামাল উদ্দিন, টেকনাফ :

টেকনাফের হ্নীলায় স্ত্রী রুজিনা আক্তারের বিরুদ্ধে ইয়াবা ব্যবসায় সংশ্লিষ্টতার দায়ে ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর অভিযোগ করেছেন স্বামী নুরুল আমিন।

২৪ সেপ্টেম্বর হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের তিনি এ অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, হ্নীলা ইউনিয়নে পূর্ব সিকদার পাড়ার রুজিনা আক্তার স্বামীর অজান্তে ইয়াবার চালান নিয়ে বিমান যোগে ঢাকা পাড়ি দিয়েছে। সে টেকনাফের হ্নীলার পূর্ব সিকদার পাড়া এলাকার মোঃ হারুনের মেয়ে। বিগত ৭/৮ বছর পূর্বে রুজিনা আক্তারের সাথে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি এলাকার আবদুস সালামের পুত্র নুরুল আমিনের বিয়ে হয়। ইত্যবসরে তাদের সংসারে ৩ সন্তানের জম্ম হয়। স্বামীর অজান্তে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসার সাথে লিপ্ত থাকলেও এলাকায় লোক মুখে শোনে স্বামী অনেকবার নিষেধ করেছিল স্ত্রী রোজিনাকে। গত ২০ সেপ্টেম্বর সে দেশের বাড়ী ফটিকছড়িতে বেড়াতে যায়। ২৪ সেপ্টেম্বর ফিরে এসে দেখে বাড়ীর দরজায় তালা লাগানো। স্ত্রী রুজিনা নেই।

অনেক খোজাখুজির পর জানতে পারে ২৩ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার হতে বিমান যোগে ইয়াবার চালান নিয়ে ঢাকাস্থ তার শ্যালিকা সাবিনা ইয়াছমিন প্রকাশ টুনটুনির স্বামী ইয়াবা সম্রাট শহিদ সরকারের বাড়ীতে অবস্থান করছে। এছাড়া রোজিনা গত এক বৎসর পূর্বেও হ্নীলাস্থ বাড়ী থেকে অবৈধ রোহিঙ্গা নাগরিক ও ইয়াবাসহ টেকনাফ থানা পুলিশের হাতে আটক হয়ে দীর্ঘদিন জেল হাজতে ছিলেন। বর্তমানেও স্বামীর অজান্তে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ নানা অবৈধ ব্যবসা করে এলাকার পরিবেশ কলুষিত করে তুলেছে। এব্যাপারে স্বামী নুরুল আমিন প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।