টেকনাফে ৫টি পুজা মন্ডপ শারদীয় দুর্গা উৎসবের প্রস্তুতি চলছে

8765443.jpg

জিয়াবুল হক, টেকনাফ |
আগামী ৭ অক্টোবর হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা। এ উৎসবকে কেন্দ্র করে টেকনাফে চলছে প্রতিমা তৈরি আর সাজ সজ্জার প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে। হিন্দুদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় এ অনুষ্ঠানে পরম প্রণয় আর শ্রদ্ধাভরে পূঁজার উদ্দেশ্যে মৃৎশিল্পীরা তাদের শৈল্পিক হাতে তৈরী করছে মা দূর্গাকে। পাশাপাশি পুজা মন্ডপের জন্য টেকনাফ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা।
চলছে সাজ সাজ রব। চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ মন্দিরে মন্দিরে চলছে সাজ সজ্জার প্রস্তুতি।
গতকাল ২৩ সেপ্টেম্বর মন্দির গুলো ঘুরে দেখা যায়, টেকনাফ উপজেলায় ৫টি পুজা মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ। ইতিমধ্যে বানানো হয়েছে লক্ষী, স্বরশ্বতী, কার্তিক ও গণেশ, অসুর, সিংহ, পেঁচা, ময়ূর, হাঁস ও ইদুর। মা দূর্গা প্রতিমা বানানোর কাজও প্রায় শেষের পথে। আবার অনেক অনেক মন্দিদে প্রতিমা বানানো কাজ শেষ চলছে সাজ সজ্জা ও রং তুলির কাজ। মা দূর্গার গাঁয়ের পরানো হচ্ছে আকর্ষনীয় দৃষ্টিনন্দন শাড়ি। প্রতিমার গায়ে লাগানো হচ্ছে হরেক রকমের রং। এদিকে কক্সবাজার ও চট্রগ্রামের বিশিষ্ট, সু-দক্ষ প্রতিমা নির্মাতা প্রতিষ্ঠান গুলোর মৃৎ শিল্পীরা দীর্ঘ ৩ মাস যাবত প্রতিমা তৈরীর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে। সঠিক সময়ে কাজ শেষ করার জন্য দিন রাত চলছে তাদের প্রতিমা তৈরীর কাজ। প্রতি বছর শারদীয় দূর্গা উৎসবকে কেন্দ্র করে এই উপজেলায় সাম্প্রাদায়ীক সম্প্রীতির মিলন মেলা পরিনত হয়।
এ ব্যাপারে উপজেলা পুজা উৎযাপন পরিষদ ও টেকনাফ কেন্দ্রীয় মন্দির কমিটির সভাপতি শিবপদ ভট্রাচার্য বলেন, এইবারে শারদীয় দুর্গা উৎসবের জন্য ৫টি পুজা মন্ডপ তৈরী করা হয়েছে। সার্বক্ষনিক নিরাপত্তার জন্য টেকনাফ উপজেলা প্রশাসন সার্বিক সহযোগীতা করে যাচ্ছে। আসা করি সকল প্রস্তুতি সঠিক সময়ে শেষ করতে পারব। এবং আগামী ৭ অক্টোবর সাম্প্রাদায়ীক সম্প্রীতির মিলন মেলায় পরিনত হয়ে শুরু হবে শারদীয় দুর্গা উৎসব।