নাইক্ষ্যংছড়ির জামায়াত নেতা উপজেলা চেয়ারম্যান তোফায়েল আটক

-আহম্মদ-২.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি |
পার্বত্য জেলা বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বহুল আলোচিত ও দেশ কাপানো রামু বৌদ্ধ মন্দির হামলার পরিকল্পনাকারী একাধিক মামলার আসামী ও জামায়াত নেতা এবং রোহিঙ্গা বিদ্রোহী সলিডারিটি অর্গানিজেশন (আর এস ওর) মদদদানকারী নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহম্মেদকে বান্দরবান সদর এলাকা থেকে গোয়েন্দা পুলিশ আটক করেছে । রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে জেলা শহরের রাজার মাঠ থেকে গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ দল তাকে আটক করে। বর্তমানে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শহরের রাজার মাঠ এলাকায় ঘুরাঘুরি করার সময় গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ দল তাকে আটক করে, এসময় তার সাথে তার শ্যালক রাকিবসহ কয়েকজন লোক ছিলেন এবং পরে ডিবি কার্যালয়ে এনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে । বান্দরবান জেলার পুলিশ সুপার সঞ্জীত কুমার রায় বলেন, তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জানা গেছে, কক্সবাজারের রামু বৌদ্ধবিহারে হামলার মামলার আসামি বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা তোফায়েল আহম্মদকে গত ১১ জানুয়ারি ঢাকার সুন্দরবন হোটেলের ৩১৮ নম্বর কক্ষ থেকে একটি পিবিআই দল গ্রেফতার করে এবং চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে বের হলে এতদিন আত্মগোপনে ছিলেন।