কাশ্মিরে ভারতীয় সেনা দফতরে হামলা, ১৭ সৈন্য নিহত

jk_25279_1474177140.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক |
জম্মু-কাশ্মিরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর একটি ব্রিগেড সদর দফতরে হামলায় ১৭ জন সৈন্য নিহত হয়েছেন।

এ সময় সৈন্যদের গুলিতে নিহত হয়েছেন চার হামলাকারীর সবাই। খবর এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, রয়টার্সের।

রোববার ভোরে পাকিস্তানের সীমান্তবর্তী উরি লাইন অব কন্ট্রোলের নিকটে সেনা সদর দফতরে এ হামলা হয়।

সেনা সদর দফতরটি বারামুল্লা জেলার শ্রীনগর-মুজাফফরাবাদ হাইওয়ের উরিতে অবস্থিত। এটা সেনাদের অস্ত্রাগার হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

হামলাকারীরা প্রশাসনিক ভবনে প্রবেশ করে। এরপর সেখানে উভয়পক্ষের মধ্যে প্রায় ছয় ঘণ্টা বন্দুকযুদ্ধ হয়।

এতে আরও ১২ সেনা আহত হয়েছেন। তাদের হেলিকপ্টারে করে রাজ্যের রাজধানী শ্রীনগরে সেনা হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

হামলার পর উরির দোকানপাট সব বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

ভারতীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হামলাকারীরা ফিদায়েন বা আত্মঘাতী স্কোয়াড হতে পারে।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর মুখপাত্র এনডিটিভিকে জানিয়েছেন, আরও হামলাকারী রয়েছে বলে সেখানে অনুসন্ধান অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

তবে হামলায় ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়নি সেনাবাহিনী।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর একটি সূত্র জানায়, চার থেকে ছয়জন আত্মঘাতী হামলাকারী কমান্ডো স্টাইলে হামলা চালিয়েছে।

হামলার পর ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র সফর স্থগিত করেছেন। তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিবকে ঘটনাটি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

এছাড়া রাজনাথ জরুরি বৈঠক ডেকেছেন। উচ্চ পর্যায়ের এ বৈঠক দুপুর সোয়া ১২টায় রাজনাথ সিংয়ের বাসায় অনুষ্ঠিত হবে।

ভারতীয় কর্মকর্তাদের মতে, ২০১৪ সালের পর জম্মু-কাশ্মিরের উত্তরাঞ্চলে এটিই সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা।

এর আগে চলতি বছর পাঞ্জাবে পাঠানকোট বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছিল জঙ্গিরা। সেখানে টানা তিনদিন বন্দুকযুদ্ধের পর সাত জঙ্গি নিহত হয়।