হ্নীলা সীমান্তে দিন-দুপুরে ৪০হাজার ই*য়া*বা*র চালান ফেলে পালাল পাচারকারী

: হুমায়ুন রশিদ
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

বিশেষ প্রতিবেদক : হ্নীলায় বিজিবি জওয়ানেরা দিন-দুপুরে মাদক কারবারীকে ধাওয়া করে ৪৯হাজার পিস ইয়াবার চালান জব্দ করেছে।

জানা যায়, ২২মে সকালে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের হ্নীলা বিওপি’র একটি টহলদল দায়িত্বপূর্ণ চৌধুরী পাড়া নামক এলাকায় নাফ নদী সীমান্তে নিয়মিত টহল করছিল। এসময় কিছুক্ষণ পর একজন ব্যক্তিকে সাঁতরে নাফ নদী পার হয়ে সীমান্তের শূন্য লাইন অতিক্রম করে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে আসতে দেখে এবং তার গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় টহলদল তাকে দাড়ানোর জন্য চ্যালেঞ্জ করে। উক্ত ব্যক্তি দূর হতে বিজিবি টহলদলের উপস্থিতি অনুধাবন করা মাত্রই লোকালয়ের মধ্য দিয়ে দৌঁড়ে দ্রæত পার্শ্ববর্তী গ্রামের দিকে পালিয়ে যায়। টহলদল উল্লেখিত স্থানে পৌঁছে তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করে উক্ত ব্যক্তির ফেলে যাওয়া একটি প্লাস্টিকের বস্তা উদ্ধার করে তার ভেতর হতে ৪০হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করে।

টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ মহিউদ্দীন আহমেদ (বিজিবিএমএস) জানান, জব্দকৃত ইয়াবা পরবর্তীতে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তি ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে প্রকাশ্যে ধ্বংস করার জন্য ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে।

এদিকে স্থানীয় সুত্রের দাবী হোয়াব্রাং সুলিশ পাড়ার ছৈয়দ নুরের পুত্র মোঃ রফিক এই মাদকের চালান নিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে বহন করছিল। বিজিবির চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে প্রাণ রক্ষার্থে ঘেরা-বেড়া ভেঙ্গে রাখাইন পল্লীর ভেতর থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। এলাকার মাদক বিরোধী সচেতন মহল মাদক বহনকারীর এমন দুঃসাহসিক কান্ড থেকে হতবাক হয়েছে। ###