তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরুর ঘোষণা’ রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের !

: নুরুল করিম রাসেল
প্রকাশ: ২ years ago

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : ‘রাশিয়া ওয়ান’ নামে রাশিয়ার একটি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেলের একজন সঞ্চালক ‘ঘোষণা’ করেছেন যে, ইউক্রেন যুদ্ধে তাদের যুদ্ধ জাহাজ মস্কভা ডুবে যাওয়ার পর ইতিমধ্যেই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে।

এর আগে রাশিয়া দাবি করেছিল গোলাবারুদে বিস্ফোরণের ফলে আগুন লাগার পরে জাহাজটি ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং বন্দরে ফিরিয়ে আনার সময় ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায়।

অন্যদিকে, ইউক্রেন দাবি করেছে, তাদের নেপচুন ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে রাশিয়ার কৃষ্ণ সাগরীয় রণতরী বহরের প্রধান জাহাজ মস্কভা ধ্বংস হয়েছে।

কিন্তু জাহাজটি ডুবে যাওয়ার ফলে ক্রেমলিনের প্রধান প্রচারণা মুখপত্র রাশিয়া ওয়ান টিভিতে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। ওলগা স্কাবেয়েভা নামে চ্যানেলটির একজন সঞ্চালক একটি হাড়হিম করা বিবৃতি দিয়েছেন। তিনি দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলেন যে, ‘এর ফলে যা ঘটেছে তাকে নিরাপদে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ বলা যেতে পারে’ এবং তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, ‘এটি সম্পূর্ণরূপে নিশ্চিত’।

স্কাবেয়েভা আরও বলেন, ‘এখন আমরা অবশ্যই ন্যাটো অবকাঠামোর বিরুদ্ধে লড়াই করছি, যদিও ন্যাটো নিজে যুদ্ধক্ষেত্র উপস্থিত নেই। কিন্তু আমাদের তা বুঝে নিতে হবে’।

ওই টিভি শো’তে আসা একজন অতিথি মস্কভা ডুবে যাওয়াকে রাশিয়ার মাটিতে আক্রমণের সঙ্গে তুলনা করেছেন। অথচ ক্রেমলিন জোর দিয়ে বলেছে যে, জাহাজটি অগ্নিকাণ্ডের কারণে ডুবে গেছে।

লোকটিকে মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে, যুদ্ধ বলার পরিবর্তে ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলাকে বোঝাতে সরকার-অনুমোদিত বাক্যাংশ ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ ব্যবহার করতে হবে।

ওই টিভি অনুষ্ঠানের ভিডিও ক্লিপ এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ভাইরাল হচ্ছে। টুইটার ভিডিওটির ওপর সতর্কতা হিসেবে লিখে দিয়েছে, এই ভিডিওতে সংবেদনশীল কনটেন্ট রয়েছে।
এক টুইটার ইউজার মন্তব্য করেছেন, ‘তারা ভালুককে খোঁচা দিচ্ছে (শ্লেষকে ক্ষমা করুন), কিন্তু এই ক্ষেত্রে ন্যাটো ভালুক’।

আরেকজন টুইট করেছেন, ‘তারা ৫০০টি ট্যাঙ্ক, আরও ২০০০টি অন্যান্য যুদ্ধযান, ৮২টি বিমান, ১৮ হাজারের বেশি সৈন্য এবং একটি যুদ্ধ জাহাজ হারিয়েছে। অথচ ন্যাটো এখনো যুদ্ধ ক্ষেত্রেই আসেনি। সুতরাং এটা বলা ন্যায্য যে ন্যাটোর বিরুদ্ধে এই যুদ্ধ রাশিয়ার পক্ষে ভালো যাচ্ছে না’।

রাশিয়ার আরেকটি রাষ্ট্র-চালিত টেলিভিশন চ্যানেলে একজন অ্যাঙ্কর যুক্তি দেন যে, ইউক্রেন ‘এখনও আরও উস্কানিমূলক, রক্তাক্ত, ভয়ঙ্কর, সম্পূর্ণরূপে অচিন্তনীয়’ প্রচারণা চালিয়ে পশ্চিমাদের ডেকে আনছে।

চ্যানেল ওয়ানে ভ্রেম্যা পোকাজেটের হোস্ট ওলেস্যা লোসেভা বলেছেন, পশ্চিমারা এখন ইউক্রেনে ‘হাজার কোটি টাকার অস্ত্র’ সরবরাহ করছে।

রাশিয়ার বার্তা সংস্থাগুলো বৃহস্পতিবার গভীর রাতে জানিয়েছে যে যুদ্ধজাহাজ মস্কভা বন্দরে ফিরিয়ে আনার সময় রুক্ষ আবহাওয়ায় ডুবে যায়।