Monday, August 8, 2022
Homeকক্সবাজারটেকনাফের নিগার ফারজানা ও চকরিয়ার লিজা মেডিকেল ভর্তী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ

টেকনাফের নিগার ফারজানা ও চকরিয়ার লিজা মেডিকেল ভর্তী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ

টেকনাফ প্রতিনিধি ও নিজস্ব প্রতিবেদক,চকরিয়া |
বিগত ৭ অক্টোবর ২০১৬ খ্রিস্টাব্দে অনুষ্ঠিত মেডিকেল পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে মেধাতালিকায় উত্তীর্ণ হয়ে ৬নং সিলেট মেডিকেল কলেজে বিভাজন করা হয়।
কৃতি ছাত্রী নিগার ফারজানা (পান্না) টেকনাফ উপজেলাধীন সাবরাং ইউনিয়নের নোয়াপাড়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত ঠিকাদার হাজ্বী রশিদ আহমদ মা মোস্তফা খাতুনের মেয়ে ।

ফারজানার ১১ ভাই বোনের মধ্যে ২ বোন ১ ভাই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন। এছাড়া অন্যরাও ব্যবসা, চাকুরী ও অধ্যয়নে ন্যস্ত রয়েছে।

সে নোয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নোয়াপাড়া আলহাজ্ব নবী হোসাইন উচ্চ বিদ্যালয় ও খুটাখালী বালিকা মাদ্রাসা থেকে এসএসসি পাশ করেছিল। সে সকল শিক্ষক ও সর্বস্তরের সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী।

এর আগে সে কৃতিত্বের সাথে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বৃত্তি লাভ করেছিল।

জানা গেছে, সাবরাং ইউনিয়নের প্রথম প্রাথমিক নারী শিক্ষিকা হিসাবে চাকুরী লাভ করেছিলেন ফারজানার বড় দুই বোন সানজিদা আক্তার ও নার্গিস পারভিন।

মেডিকেলের পাঠ চুকিয়ে সে যাতে একজন স্বনামধন্য চিকিৎসক হিসাবে দেশ ও জাতির সেবা করতে পারে তার জন্য সকলের দোয়া প্রার্থী ।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় স্থান পেলেন চকরিয়ার ছাত্রী লিজা

নিজস্ব প্রতিবেদক,চকরিয়া
চকরিয়ার সংবাদপত্র এজেন্ট আলহাজ কামাল উদ্দিন ও জয়নাল আবদীন কমিশনারের ভাতিজি ও মরহুম আলহাজ রফিক উদ্দিন সওদাগরের কন্যা নুসরাত জাহান লিজা ঢাকা সরোয়ারর্দী মেডিকেল কলেজে মেধা তালিকায় স্থান পেয়েছেন। সম্প্রতি কৃতি ছাত্রী লিজার বাবা মারা গেছেন। তার বাবার স্বপ্ন ছিল মেয়েকে মেডিকেল কলেজে ভর্তি করে এমবিবিএস ও বিসিএস-এ অংশ গ্রহণ করাবে। বাবার স্বপ্ন মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পাওয়ায় মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে শোকরিয়া জ্ঞাপন করেছেন তার মা নাছিমা আক্তার ও ভাই মোহাম্মদ শরীফ। কৃতি শিক্ষার্থী লিজা সকলের কাছে দোয়া কামনা করেছেন।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments