চকরিয়ায় আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর তালিকা তৈরীতে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ, পরিবর্তনের দাবি

: নুরুল করিম রাসেল
প্রকাশ: ৫ years ago

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া :
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ চকরিয়া পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ড শাখার সম্মেলন উপলক্ষে বর্তমান কমিটির নেতাদের বিরুদ্ধে কাউন্সিলর তালিকা তৈরীতে বিএনপি-জামাত ঘরনার লোকজনকে অন্তর্ভূক্তি ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে নিকট আত্মীয়দের যুক্ত করার অভিযোগ উঠেছে। অনিয়মের এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলন ও কাউন্সিল বয়কটের ঘোষণা দিয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি প্রার্থী রফিক উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আশেকুর রহমান মামুন। মঙ্গলবার বিকালে চকরিয়া পৌরশহরে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে কাউন্সিলর তালিকায় বিভিন্ন ধরণের অনিয়ম তুলে ধরেছেন। তাঁরা জরুরী ভিত্তিতে স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে তৈরী করা উল্লেখিত কাউন্সিলর তালিকা নতুন করে প্রণয়নসহ সম্মেলনের নতুন তারিখ ঘোষনার দাবী জানিয়েছেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগ, চকরিয়া পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীগের সভাপতি-সম্পাদকের কাছে।
সভাপতি প্রার্থী রফিক উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আশেকুর রহমান মামুনের অভিযোগ করেন, বর্তমান কমিটির সভাপতি বশিরুল আইয়ুব ও সাধারণ সম্পাদক ছফুর আলম তাদের মনগড়া কাউন্সিলর তালিকা প্রণয়ন করেছে। তাতে সহায়তা করেছেন পৌরসভা কমিটি থেকে দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক কমিটি। ওই সাংগঠনিক কমিটি অনিয়মের আশ্রয় নিয়ে দায়সাড়া গোচরভাবে কাজ করেছে। তালিকায় বিভিন্ন সমস্যাদির মধ্যে রয়েছে, বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত নেতাকর্মী এবং বর্তমান কমিটির সভাপতি-সম্পাদকের পারিবারিক আত্বীয় স্বজনদের গাণিতিক হারে কাউন্সিলর করেছে। তালিকায় অনেক ত্যাগী কর্মীকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ভিন্ন ওয়ার্ডের বাসিন্দাসহ সরকারি দপ্তরে কর্মরতদের তালিকায় অন্তভূক্ত করা হয়েছে, যা বিধি-বিধান ও গঠনতন্ত্র পরিপন্থি।
সম্মেলন উপলক্ষে তৈরীকৃত তালিকার মধ্যে রয়েছে ১১নং ক্রমিকের নাজেম উদ্দিন ভিন্ন ওয়ার্ডে, ২০নং ক্রমিক সরকারি চাকুরী জীবি, ২৮নং ক্রমিকের তৌহিদ হোছাইন বিএনপি, ৪৬নং ক্রমিকের জিয়াবুল হক শ্রমিকলীগের আহবায়ক, ১০৩নং ক্রমিকের সালাহউদ্দিন যুবলীগ, ১০৪নং ক্রমিকের রাশেদা বেগম, ১০৫নং ক্রমিকের মকছুদ আহমদ, ১০৭নং ক্রমিকের মনোয়ারা বেগম, ১১৪নং ক্রমিকের মো: হোছাইন সও: বিএনপি, ১২১ থেকে ১২৬পর্যন্ত ক্রমিক সম্পাদক ছফুর আলমের পরিবারের সদস্য, ১২৮নং ক্রমিকের হাসান আবদীন রুবেল জামায়াত, ১৩৩নং ক্রমিকের হুমায়ুন কবির মানিক, ১৩৪নং ক্রমিকের রুমা আক্তার, ১৩৭নং ক্রমিকের শাহিদা বেগম, ১৩৯নং ক্রমিকের আনিছা বেগম বিএনপি, ১৪১নং ক্রমিকের হুমায়রা বেগম বিএনপি, ১৪৩নং ক্রমিকের আবু হানিফ যুবলীগ, ১৪৪ ও ১৪৫নং ক্রমিকের ফাহমিদা জন্নাত ও সাইফুদ্দিন বিএনপি, ১৪৬নং ক্রমিকের মাস্টার আনোয়ারুল আজিম সরকারী চাকুরীজীবি, ১৫৩ ও ১৫৭নং ক্রমিকের সাকেরা বেগম ও আবদুল হামিদ যুবলীগ, ১৫৯নং ক্রমিকের কহিনুর আক্তার শ্রমিকলীগ, ১৬০নং ক্রমিকের সাইফুল ইসলাম বাবুল ছাত্রলীগ, ১৬৩, ১৬৮, ১৬৯ ও ১৭৯নং ক্রমিকের হায়দার আলী, হাবিবুর রহমান, হাবিবু নবী ও উম্মে হাফসা যুবলীগ, ১৮৮নং ক্রমিকের কাউছার জাহান ভিন্ন ওয়ার্ডের বাসিন্দা।
ভুক্তভোগী প্রার্থীরা দাবি করেছেন, সম্প্রতি সময়ে তৈরীকৃত ওই কাউন্সিলর তালিকা নিয়ে ৩০অক্টোবর পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সম্মেলনের তারিখ রাখা হলেও তালিকা সরবরাহ করেছে মাত্র একদিন আগে ২৯অক্টোবর। এবিষয়ে মৌখিকভাবে পৌরসভার সভাপতি-সম্পাদককে অবহিত করা হয়েছে।
তারা আরো বলেন, তরুণদের সাথে ওয়ার্ডের প্রবীণ ও ত্যাগী আওয়ামীলীগের মূল্যায়নের মাধ্যমে কাউন্সিলর তালিকা প্রণয়নের দায়িত্ব দিয়ে জরুরী ভিত্তিতে নতুন করে স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ কাউন্সিলর তালিকা প্রণয়ন এবং ৩০ অক্টোবরের সম্মেলন ও কাউন্সিলের তারিখ পরিবর্তন করে নতুন সময়সূচি ঘোষণার করতে হবে। এজন্য তারা কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি-সম্পাদক, চকরিয়া পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য ও পৌরসভা আওয়ামীগের সভাপতি-সম্পাদক বরাবরে মঙ্গলবার লিখিত অভিযোগ করেন।
জানতে চাইলে চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু বলেন, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কাউন্সিলর তালিকা প্রণয়নের ক্ষেত্রে অনুমোদনের পূর্বে একটি সাংগঠনিক কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়েছিলো। তাদের সুপারিশের ভিত্তিতে উক্ত কাউন্সিলর তালিকা অনুমোদন দেওয়া হয়। এরপরও তালিকায় বিএনপি-জামায়াত ঘরনার লোকজন কিংবা আত্বীয় করণ হয়ে থাকলে তা তদন্ত সাপেক্ষে পূণরায় বাছাই করা হবে। #