Monday, August 8, 2022
Homeকক্সবাজারআগামী নির্বাচনে চকরিয়া পেকুয়া আসনে নৌকাকে পরাজিত করতে সাংসদ জাফরকে জড়িয়ে ষড়যন্ত্র!

আগামী নির্বাচনে চকরিয়া পেকুয়া আসনে নৌকাকে পরাজিত করতে সাংসদ জাফরকে জড়িয়ে ষড়যন্ত্র!

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজার ১ আসনের সাংসদ ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম ও তার পরিবার সদস্যদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত সুগভীর ষড়যন্ত্র চলছে বলে অভিযোগ করেছেন মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পশ্চিম বড়ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা এবং সাধারণ সম্পাদক চকরিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মকছুদুল হক ছুট্ট বলেছেন চকরিযা পেকুয়া বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে দলের কতিপয় মহল সাংসদ জাফর আলম ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। আমরা এইধরনের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।
মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা বলেন, সামনে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। ১। আগামী সেপ্টেম্বরে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন। ২। অক্টোবরে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন। ৩। ২০২৩ সালে জাতীয়সংসদ নির্বাচন।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন হবার দীর্ঘ চল্লিশ বছর পর কক্সবাজার ১ (চকরিয়া পেকুয়া) আসনে নৌকার একজন সাংসদ হয়েছেন আলহাজ্ব জাফর আলম। তার সুদক্ষ যার নেতৃত্বে চকরিয়া পেকুয়ায় নৌকার এমপি পেয়েছে জনগণ।
মুলত সাংসদ জাফর আলম আলমকে হেয় করার জন্য দলের ভেতরে সুগভীর ষড়যন্ত্র চলছে। তারা বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য নতুন ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। সাংসদ
জাফর আলমকে দুর্বল করতে পারলে সবচেয়ে বেশি লাভ বান হবে বিএনপি। তাই আমাদের দাবি, বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য দলের ভিতর লুকিয়ে থাকা দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করা জরুরী।

মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মকছুদুল হক ছুট্ট বলেছেন কক্সবাজার -০১ আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলম একজন পরিচ্ছন্ন ও জনদরদী রাজনীতিবিদ। একসময় চকরিয়া-পেকুয়া- মাতামুহুরী এই তিন উপজেলা (সাংগঠনিক সহ) নিয়ে গঠিত সংসদীয় আসন টি মূলত জামাত-শিবির-বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত ছিল। চকরিয়া পেকুয়া জনপদের সাহসী সন্তান জাফর আলম এমপির নেতৃত্বে দীর্ঘ ৪০ বছর পর এই আসনটিতে নৌকা নিয়ে প্রথমবারের মতো নির্বাচন করে মহা বিজয় ছিনিয়ে এনেছেন। তিনি রাজপথে নেমে বিএনপি’র নৈরাজ্য ঠেকিয়েছেন। জঙ্গিবাদ দমন করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে এই জনপদ এখন শান্ত জনপদ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। সন্ত্রাসীরা এখন ঘরে ঢুকে গেছে।
এখন তার সুদক্ষ নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের মহাসড়কে চকরিয়া-পেকুয়া মাতামুহুরীর জনগণ ও গৌরবের অংশীদার।

আমরা বলতে চাই সাংসদ জাফর আলমের বিকল্প শুধুমাত্র জাফর আলম। আমাদের ধারণা আগামীতে যখন নৌকা নিয়ে তিনি চকরিয়া পেকুয়া আসনে বিজয় কেতন উড়তে শুরু করেছে, নৌকার পালে হাওয়া লেগেছে, ঠিক এ সময় কিছু দলের ভেতরে থাকা কুচক্রী মহল এ আসন থেকে নৌকাকে পরাজিত করার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। সাংসদ জাফর আলম ও তার পরিবারকে কে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য ষড়যন্ত্রের পথে হাঁটছে। আমরা মনে করি কোনো ষড়যন্ত্রই সাংসদ জাফর আলমকে দমিয়ে রাখতে পারবে না ইনশাআল্লাহ।
মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক বলেন, সাংসদ জাফর আলমের সহধর্মীনী সাহেদা জাফর একজন সফল শিক্ষিকা। তিনি বালুমহাল/জলমহাল /দখল বেদখল নিয়ে কোন অবস্থাতে জড়িত নন। তিনি আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদের সহধর্মিনী হিসেবে, আওয়ামী লীগ ঘরণার গৃহিণী হিসেবে যখনই তার বাড়িতে যাওয়া দলের সকলস্থরের নেতাকর্মীকে যথাসাধ্য আপ্যায়ন ও সার্বিক সহযোগিতা করেন। মুলত এটি তার একটি রুটিন কাজ। পরিশেষে আমরা বলবো শুধুমাত্র সাংসদ জাফর আলমকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এই ষড়যন্ত্র। আমরা এই ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আশাকরি আওয়ামী লীগের নিবেদিতপ্রাণ কর্মী সমর্থক সবাই সুন্দর সত্যের পক্ষে থাকবেন। ###

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments