সংসদীয় ৩শ আসনের ভোট কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ

election-20181125005726.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : ৩০ ডিসেম্বর ভোটের অন্তত ২৫ দিন আগে আসনভিত্তিক ভোটকেন্দ্রের গেজেট প্রকাশের আইনি বাধ্যবাধকতা ছিল ইসির সামনে। নতুন সরকার গঠনে সারা দেশে ১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটার এ নির্বাচনে ভোট দেবেন।

ইসির উপ সচিব আব্দুল হালিম খান মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “৪ ডিসেম্বরের মধ্যে সব কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ সম্পন্ন করার কথা। ইসির নির্দেশনায় নির্ধারিত সময়েই ৩০০ আসনের সব কেন্দ্রের গেজেট তৈরি করা হয়েছে।”

একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য গেল অগাস্টে ৩০০ আসনে ৪০ হাজার ৬৫৭টি ভোটকেন্দ্রের সম্ভাব্য তালিকা তৈরি করেছিল নির্বাচন কমিশন। যাচাই বাছাই শেষে তার মধ্যে ৪০ হাজার ১৯৯টি ভোটকেন্দ্রের তালিকা চূড়ান্ত করা হয়।

সর্বশেষ দশম সংসদ নির্বাচনে নয় কোটি ১৯ লাখ ভোটারের বিপরীতে ভোটকেন্দ্র ছিল ৩৭ হাজার ৭০৭টি। ৩০০ আসনে ভোটকক্ষ ছিল এক লাখ ৮৯ হাজার ৭৮টি।

এবার দেশের ১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটারের জন্য এবার ৪০ হাজারের বেশি ভোটকেন্দ্রে দুই লাখের বেশি ভোটকক্ষ থাকবে।

ইসি উপ সচিব বলেন, কেন্দ্রের তালিকায় নির্বাচন কমিশনের অনুমোদন পাওয়ার পর ১ ডিসেম্বর থেকেই গেজেট বিজি প্রেসে পাঠানো শুরু করেন তারা।

উপ সচিব আব্দুল হালিম খান স্বাক্ষরিত আসনভিত্তিক কেন্দ্রের গেজেটে ভোটকেন্দ্রের ক্রমিক নম্বর; ভোটকেন্দ্রের নাম ও অবস্থান; ভোটকক্ষের সংখ্যা; ভোটার এলাকা; পুরুষ ও মহিলাসহ মোট ভোটার সংখ্যা উল্লেখ করা হয়েছে।

বিজি প্রেসের ওয়েবসাইটে দেখা যায়, ১ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গোপালগঞ্জ-৩ আসন দিয়ে কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ শুরু হয়েছে।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে নির্বাচনী এলাকার ভোটকেন্দ্রের চূড়ান্ত তালিকা সবার জ্ঞাতার্থে প্রকাশ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top