ডেসটিনি চেয়ারম্যানের ৩ বছরের কারাদণ্ড

image-111721-1542194308.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক |
কারাদণ্ড হওয়ার পর ডেসটিনির চেয়ারম্যান হোসেনকে আদালত থেকে হাজতখানায় নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।
কারাদণ্ড হওয়ার পর ডেসটিনির চেয়ারম্যান হোসেনকে আদালত থেকে হাজতখানায় নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। ছবি-সংগৃহীত
সম্পদের হিসাব জমা না দেয়ার মামলায় ডেসটিনির চেয়ারম্যান মোহাম্মাদ হোসেনকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এর বিচারক শেখ গোলাম মাহবুব এই রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় হোসেনকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

এ বিষয়ে দুদকের কৌঁসুলি মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর বলেন, সম্পদের হিসাব না দেয়ায় ডেসটিনির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। এই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে এই সাজা দেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, সম্পদের হিসাব জমা দেওয়ার জন্য মোহাম্মদ হোসেনকে ২০১৬ সালের ১৬ জুন নোটিশ দেয় দুদক। তখন হোসেন অন্য মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে ছিলেন। আইনজীবীর মাধ্যমে দুদকের নোটিশ গ্রহণ করলেও সম্পদের হিসাব জমা দেননি।

২০১৬ সালের ৮ সেপ্টেম্বর দুদকের সহকারী পরিচালক সালাউদ্দিন বাদী হয়ে রমনা থানায় মামলা করেন। পরের বছর ২০১৭ সালের ৬ জুন মোহাম্মদ হোসেনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় দুদক।

আদালত এই অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে গত বছরের ১৫ অক্টোবর হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। এ মামলায় ৫ জনের সাক্ষীর জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top