উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভায় ইউএনও কচি-নাইক্ষ্যংছড়ির মতো ছোট্ট জায়গায় এতো দূর্ঘটনা ভাবতোও কষ্ট লাগে

77-1.jpg

শামীম ইকবাল চৌধুরী : পার্বত্য নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা একটি অতি সুন্দর পাহাড়ি উপজেলা হলেও এখানকার যানবাহনে মানুষ কষ্ট পাচ্ছে,হতাহত হচ্ছে। টমটম,সিএনজি ও রিক্সার যত্র-তত্র পার্কিং এখানকার পরিবেশকে নষ্ট করে দিচ্ছে তা নয়, এসব ক্ষুদে যানবাহন এখন সাধারণ মানুষকে কষ্টও দিচ্ছে প্রতিনিয়ত। তিনি আরো বলেন এ কারণে এ ছোট্ট শহরে এতো দূর্ঘটনার বিষয়টি ভাবতেও অভাব লাগে তার। গতকাল রোববার দুপুর সাড়ে ১১ টায় নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটির সভায় সভাপতির বক্তব্যে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া আফরিন কচি এ সব কথা বলেন। সভায় উপস্থিত উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: ইমরান মেম্বার, নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেস ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা সাংবাদিক মাঈনুদ্দিন খালেদসহ বেশ ক’জন বক্তা বলেন,সম্প্রতি নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়ন এলাকায় সিএনজি-টমটম বা অটো রিক্সার মতো ছোট্ট ছোট্ট গাড়ির দূর্ঘটনায় ১জন নারী সহ ২ জন নিরীহ লোক মারা যায় । আর আহত হয় শতাধিক নারী ও শিশু। তারা বেপরওয়া। অধিকাংশ ড্রাইভার অদক্ষ-বয়স কম। দেশের আইন কানুন সর্ম্পকে তাদের কোন ধারণাই নেই। তাদের এসব জানানো দরকার। নচেৎ মানুষ কষ্ট পাবে।
সভায় এ বক্তব্যের পর ব্যাপক আলোচনা শেষে সবার সম্মতিতে সভায় উপস্থিত নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ইনচার্জ শেখ আলমগীর ও উপজেলা আওয়ামৗ লীগ নেতা ও সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরীকে এসব যানের সংগঠনের দায়িত্বশীলদের এবং স্ব-স্ব ড্রাইভারদের নিয়ে বড় আকারের সভা করে ট্রাফিক আইন সর্ম্পকে অবহিত করার দায়িত্ব দেয়া হয়। ওনারা তাদের জ্ঞান দেবেন। বুঝাবেন। এর পরও যদি কেউ সংশ্লিষ্ট বিষয়ের নিয়ম-কানুন অমান্য করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় সভায়। এ সময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) কামাল উদ্দিন ,ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা চৌধুরী,এমপি প্রতিনিধি খাইরুল বশর,নাইক্ষ্যংছড়ি হাসপাতালের টিএ্ইচও বিশিষ্ট শিশু বিশেষজ্ঞ ডা:আবু জাফর মো:সলিম,উপজেলা আওয়ামৗ লীগের সিনিয়র নেতা ও দৌছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হাবিবুল্লাহ ,ঘুমধুমের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গির আজিজ,আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু তাহের কোম্পানী, সোনাইছড়ির চেয়ারম্যান বাহাইন মার্মা, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ডা: সিরাজুল হক, বাইশারীর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলম, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী জহুরা বেগম,সাধারন সম্পাদক ওজিফা খাতুন ও নাইক্ষ্যংছড়ি যুব উন্নয়ন অফিসের কর্মকর্তা সাহাবুদ্দিন সহ উপজেলার সকল দপ্তরের কর্মকর্তা সহ আইন-শৃংখলা কমিটির সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন এ সময়।
এ ছাড়াও গতকাল দুপুরে উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটি,উপজেলা সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ কমিটির সভা,উপজেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন সর্ম্পকিত সভা,আইসিটি বিষয়ক সভা,উপজেলা ইনোভেশন টিমের সভা ও উপজেলা বন ও পরিবেশ কমিটির সভাও অনুষ্ঠিত হয় পরপর। বিশেষ করে উপজেলায় আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করা হয় সভঅয়। আর অন্যান্য বিষয়াদি নিয়েও সভার সদস্যরা সন্তোষ প্রকাশ করেন একইভাবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top