বৈচিত্রের ক্ষুদ্র এবং বৃহৎ প্রতিটি বিষয়ের অভ্যন্তরে একেরই লীলাখেলা

Teknaf-Pic-B-2-02-04-18-1.jpg

মুক্তিযোদ্ধা সোলতান আহমদ : পূর্ব এবং পশ্চিমের যেদিকেই তাকাওনা কেন, আল্লাহ ছাড়া কিছুই নেই, বলো, আল্লাহ অখন্ড, অদ্বৈত স্বয়ম্ভু সত্তা, নাই, কোন অস্তিত্ব একমাত্র আল্লাহ ছাড়া।
ছোট্ট একটি উদাহরণ দিয়ে ধারণাটি পরিস্কার করতে চাই। কাপড়ের আগমন সুতা হতে, সুতার আগমন তুলা হতে, তুলার আগমন গাছ হতে, গাছের আগমন আগুন-পানি-মাটি-বাতাস হতে, আগুন-পানি-মাটি-বাতাসের আগমন আল্লাহ হতে। সুতরাং আগুন আল্লাহর, বাতাস আল্লাহর, পানি আল্লাহর, মাটি আল্লাহর, গাছ আল্লাহর, তুলা আল্লাহর, সুতা আল্লাহর এবং কাপড়ও আল্লাহর। এগুলোকে আর আল্লাহ বলা যাবেনা, যদিও সবই আল্লাহ হতে আগমন করেছে। আল্লাহ স্বয়ং জাত এবং এই বিবর্তনের বহু ধাপগুলো একেকটি সেফাত তথা গুণাবলীর গুণাবলী। সেফাত কখনো জাত হয়না, এবং জাত কখনো সেফাত হয়না। কিন্তু সেফাতের আগমন জাত হতে, কিন্তু জাতের আগমন কখনো সেফাত হতে নয়। সুতরাং একেরই বহুরূপ, অগণিত বিকাশ ও প্রকাশ; কিন্তু কোন গুণই, কোন বিকাশই, কোন প্রকাশই সম্পূর্ণ পৃথক এক নয়, সবারই এক হতে আগমন।
স্বর্ণের বিভিন্ন অলংকার যেমন কানের দূল, নাকের ফুল, মাথার টিকলি, গলার হার, হাতের বালা ও চুড়ি এবং আংটি, কোমরের বিছা, অনেক নামে অনেক গুণের পরিচয় বহন করছে। সবগুলো একত্র করে গলিয়ে দেখেন তো! একটি স্বর্ণের পিন্ড হয়ে যাবে। মূলে একই স্বর্ণ অলংকারের শৈল্পিক শৈলীতে বিভিন্নতার প্রকাশ দেখতে পায়। এই বিভিন্নতা প্রকাশে শৈলী একেরই গুণগান গাইছে। দৃষ্টির বিভিন্নতায় দর্শনের বিভিন্নতা অবধারিত। এই বিভিন্নতার মাঝে যদি একেরই লীলাখেলা কেউ বুঝতে না পারে তবে তাকেই বা কি দোষ দেব ?

পরিশ্রম আঘাত আর ত্যাগেই যার জীবন।

সোলতান আহমদ
মোবাইল-০১৮৬৬-৪৬৪১০৬
মুক্তিযোদ্ধা তথা মুজিব বাহিনী, (১নং সেক্টর চট্টগ্রাম)
হ্নীলা, টেকনাফ, কক্সবাজার।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top