হ্নীলায় পানি চলাচল বন্ধ করে যাতায়াতের রাস্তায় পানি প্রবাহ : জনভোগান্তি চরমে

Teknaf-Pic-B-1-13-06-18.jpg

সাদ্দাম হোসাইন : হ্নীলায় এক প্রভাবশালী দীর্ঘদিনের পানি চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে মানুষ যাতায়াতের রাস্তার ইট খুলে পানি প্রবাহ চালিয়ে দেওয়ায় জন-ভোগান্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। এই ব্যাপারে উর্ধ্বতন মহলের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ভূক্তভোগী জনসাধারণ।
এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, ১৩জুন সকাল ৮টায় উপজেলার হ্নীলা পূর্ব পানখালীর মাষ্টার আব্দুস সোবহানের পুত্র সাহাবুদ্দিন (৪০) কিরিচ নিয়ে দাড়িয়ে থেকে ৬/৭জন শ্রমিক দিয়ে হ্নীলা পূর্ব পানখালী প্রাইমারী স্কুল রোড সড়কের ইট খুলে নিয়ে যায় এবং প্রধান সড়কের উপর নালা কেটে পানি চলাচলের রাস্তার গতিপথ পরিবর্তন করে দেয়। এরফলে রোজাদার মানুষের চলাচলে চরম ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে। অবিলম্বে এই সমস্যার সমাধান না হলে বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার আশংকা করা হচ্ছে। এই ব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দা কামাল হোছাইন বলেন,সরকারী পরিমাপ অনুসারে রাস্তার প্রস্থ ২০ফুট। তারা জোরপূর্বক পানি চলাচলের রাস্তা জবর দখলে নেওয়ায় এখন চলাচলের রাস্তা আছে ১০ফুট। সকালে ভাড়াটে লোক দিয়ে জন চলাচলের সরকারী রাস্তার ইট তুলে নিয়ে মাঝখানে নালা করে পানি প্রবাহিত করায় পথচারীদের ভোগান্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই এই ব্যাপারে ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।
এই ব্যাপারে অভিযুক্ত সাহাবুদ্দিনের ভাই সাইফুল ইসলাম বলেন,সরকারী রাস্তার নালা জবর দখলের বিষয়টি ভিত্তিহীন। তবে রাস্তা কেটে পানি চলাচল শোভনযোগ্য নই। তাই মানুষের চলাচল ব্যাহত হওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
এই ঘটনায় স্থানীয় ইউপি মেম্বার হোছাইন আহমদ বলেন, অবিলম্বে দীর্ঘদিনের পানি চলাচলের রাস্তা খুলে দিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা মেরামত করে দিতে হবে। অন্যথায় এই ঘটনায় জড়িত ব্যক্তির বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্তা-ব্যক্তিদের নিকট আহবান জানাচ্ছি।
এদিকে সাধারণ বাসিন্দারা এই ঘটনায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে ছেলে-মেয়েদের ঈদ বন্ধের ভেতরে ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা মেরামত করে চলাচল উপযোগী করার দাবী জানিয়েছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top