বাহারছড়ায় আহত বোনকে দেখতে গিয়েই জেঠশাস ছুরিকাঘাত

Teknaf-Pic-C-1-13-06-18.jpg

আজিজ উল্লাহ, বাহারছড়া : টেকনাফে এক বখাটে স্বামীর নির্যাতন ও মারধরে গুরুতর আহত ছোট বোনকে দেখতে গিয়েই বোন জামাইয়ের হামলা ও ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত এবং রক্তাক্ত হয়েছে এক জেটশাস। এই ব্যাপারে একটি অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
জানা যায়, ১৩ জুন সকাল ১১টারদিকে টেকনাফের উপকূলীয় বাহারছড়ার শীলখালী বটতলা ফরা বিলের নুরুল কবিরের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম পাশ^বর্তী স্বামীর নির্যাতনে গুরুতর আহত ছোট বোন রোজিনাকে দেখতে যান। বোন জামাইয়ের বাড়ি পৌঁছে সদর গেইট দিয়ে ঢোকার সাথে সাথেই বোন জামাই মোঃ হেলাল উদ্দিন এসেই কোন কথা ছাড়া মারধর করে এবং গলায় ধাক্কা দিয়ে লাঠির আঘাত করেই মাটিতে ফেলে দেয়। এতেই নরপিশাচ বোন জামাই হেলাল ক্ষান্ত না হয়ে বউয়ের বড় বোনের দুই হাতে ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত করে। এরপর আনোয়ারা অজ্ঞান হয়ে পড়ে থাকে। এই ঘটনার খবর পেয়ে হেলালের শ^াশুড়ী ও রক্তাক্ত আনোয়ারার মা ছেনুয়ারা লোকজন নিয়ে এসে উদ্ধার করে শামলাপুরে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। এই ব্যাপারে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
উল্লেখ্য,স্থানীয় আব্দুল হামিদের পুত্র, বেকার ও বখাটে হেলাল উদ্দিন ২য় স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (২০) কে কারণে-অকারণে মারধর করে আসছে। তার পিতা ও ভাই-বোনের সাথে কথা বলা পর্যন্ত নিষিদ্ধ করে রেখেছে। শেষ পর্যন্ত নির্যাতন ও মারধরে গুরুতর আহত হয়ে বাড়িতে পড়ে ছিল। বড় বোনকে একটু দেখতে আসতে বলে। সে ছোট বোনকে দেখতে আসায় বোন জামাইয়ের হামলার শিকার হল। এই ঘটনায় স্থানীয় জনসাধারণের মধ্যে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top