সাবেক আইএসআই প্রধানের পাকিস্তান ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা!

163827asad.jpg

অনলাইন ডেস্ক :

এক নজিরবিহীন পদক্ষেপ নিল পাকিস্তানি সেনাবাহিনী। ইসলামাবাদের সেনা গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই এর প্রাক্তন প্রধান আসাদ দুররানির দেশত্যাগের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। আফগানিস্তান ও কাশ্মীরে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর ভূমিকা নিয়ে ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ এর প্রাক্তন প্রধানের সঙ্গে যৌথভাবে সম্প্রতি একটি বই প্রকাশ করেছেন তিনি। এরপরেই পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর তরফে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আসাদকে।

জেনারেল দুররানি ১৯৯০ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই এর প্রধান ছিলেন। পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র বলেছেন, দুররানি যাতে দেশত্যাগ করতে না পারেন সেজন্য তার নাম ‘এক্সিট কন্ট্রোল লিস্টে’ রাখা হয়েছে।

সম্প্রতি জেনারেল দুররানি ও ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’-এর প্রাক্তন প্রধান এ এস দৌলতের লেখা একটি বই প্রকাশিত হয়। ‘দ্যা স্পাই ক্রনিকলস: র, আইএসআই অ্যান্ড দ্যা ইলিউশন অব পিস’ নামক বইটি গত সপ্তাহে প্রকাশিত হওয়ার পর পাকিস্তানে বিতর্কের ঝড় ওঠে। বিশেষ করে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী কঠোর প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে জেনারেল দুররানিকে তলব করে। পাশাপাশি এই বই লেখার পেছনে তার ভূমিকা সম্পর্কে ব্যাখ্যা জানতে চায়।

এএস দৌলত

পাকিস্তানি সেনাবাহিনী জানায়, এটি লিখে সেনাবাহিনীর ‘কোড অব কন্ডাক্ট’ লঙ্ঘন করেছেন দুররানি। এরপরেই প্রাক্তন আইএসআই প্রধানের বিরুদ্ধে এই নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান।

বইটিতে দাবি করা হয়েছে, ইসলামি জঙ্গি সংগঠন আল কায়েদার প্রধান ওসামা বিন লাদেনের অবস্থান সম্পর্কে জানত পাকিস্তান। এবং পাকিস্তানের দেওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করেই ২০১১ সালে মার্কিন নৌবাহিনীর কামান্ডোরা বিন লাদেনকে খুঁজে পায় এবং হত্যা করে।

এছাড়াও পাকিস্তান সেনাবাহিনীর জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নিয়ে অনেক স্পর্শকাতর মন্তব্য করা হয় বইটিতে।

সূত্র: এনডিটিভি ও দ্য ডন

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top