চকরিয়ায় দিনদুপুরে মরা গরু জবাই মাংস বিক্রি কালে দুই কসাই আটক, মাংস জব্দ

Chakaria-Picture-03-05-2018..jpg

৫০ হাজার টাকা জরিমানা ভ্রাম্যমান আদালতের

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া :
চকরিয়ায় দিনদুপুরে মরা গরু জবাই করে মাংস বিক্রির সময় দুই বিক্রেতাকে (কসাই) আটক করেছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারেরা। এ সময় তারা দোকান থেকে প্রায় ৬০ কেজি পঁচা ও দূর্গন্ধযুক্ত মাংস উদ্ধার করে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ছিকলঘাট ষ্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তাদেরকে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে সোপর্দ করা হলে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূরদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় দুই মাংস বিক্রেতাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে মুছলেকা নিয়ে ছেড়ে দেন আদালত।
লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ছিকলঘাট ষ্টেশন থেকে মাংস কিনে নেন স্থানীয় হোটেল ব্যবসায়ী আলী আহামদ। পরে ওইসব মাংস বাড়িতে কাটতে গিয়ে দেখা যায় মাংসের মধ্যে পোঁকা এবং দূর্গন্ধ বের হচ্ছে। পরে তিনি ঘটনাটি আমাকে জানালে তাৎক্ষনিক স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল কালাম, চৌধরুল কবির, আবদুল গনি, যুবলীগ নেতা মিন্টু ও গ্রাম পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁেছ দুই মাংস বিক্রেতাকে আটক করি।
আটককৃতরা হলেন চকরিয়া উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের কসাইপাড়া এলাকার কালা মিয়ার ছেলে রুস্তম আলী (৫০) ও একই এলাকার নুরুল কবিরের ছেলে মো. আরিফ (৩৫)।
ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, এরপর ঘটনাটি চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হলে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি উপস্থিত হয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, ছিকলঘাট এলাকায় মরা গরুর মাংশ বিক্রির খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে দুই মাংস বিক্রেতাকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় পচা মাংস গুলি স্থানীয় চেয়ারম্যানকে মাটিতে পুতে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top