চকরিয়ায় তুচ্ছ ঘটনায় বাবা-ছেলেসহ ৬ জনকে কুপিয়ে জখম

hamla_1.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়ায় তুচ্ছ ঘটনার জেরে পিতা-পুত্রসহ ৬জনকে কুপিয়ে জখমসহ বসতঘরে ঢুকে লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে ভূক্তভোগী পরিবারের মিনু আরা বেগম (৪৫) বাদী হয়ে ১০জনের নাম উল্লেখ করে গতকাল ১৩ মার্চ রাতে থানায় লিখিত এজাহার দেয়া হয়েছে। উপজেলার পূর্ববড়ভেওলা ইউনিয়নের ঈদমনি লালব্রীজ ঘাইট্টারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
অভিযোগে জানাগেছে, স্থানীয় নুরুল আলমের পুত্র মানিকের সাথে ভিসা সংক্রান্ত মাত্র ৫ হাজার টাকা লেনদেন নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয় একই এলাকার ভোলা মিয়ার পুত্র জুলফিকারের সাথে। এরই জের ধরে ১১ মার্চ বিকাল ২টার দিকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে নুরুল আলম ও তার ভাতিজা আবু বক্করের উপর হামলা চালায় ভোলা মিয়া, তার ছেলে হাশেম, জুলফিকার, জিন্নাত আলীসহ ১০/১৫জনের একটিদল। ওইসময় নুরুল আলমের কান কেটে দ্বিখন্ডিত করে এবং হাড়ভেঙ্গে দেয়।
ঘটনার সময় তাকে বাচাঁতে এগিয়ে আসলে স্ত্রী মিনু আরা বেগম, ছেলে মানিক, রিদুয়ান, পুত্রবধু রুমি এগিয়ে আসলে তাদের উপরও হামলা করে এবং বসতঘরে ঢুকে ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। ভাংচুর, স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুটে অন্তত দেড় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয় বলে এজাহারে উল্লেখ করেন। আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে নুরুল আলমের অবস্থা আশংখাজনক হওয়ায় জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, লিখিত এজাহার পেয়েছেন। থানার একজন কর্মকর্তা তা তদন্ত করছেন। সত্যতা পাওয়া গেলে মামলা রুজুসহ আসামীদের গ্রেফতার করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top