নেপালে ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনায় ১২ জন নিহত, ৩০ জন বাংলাদেশী যাত্রী ছিল

image-26843-1520850757-1.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : নেপালে ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনায় ১২ জন নিহত হয়েছে।
ঢাকা থেকে নেপালের কাঠমান্ডুর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া ইউএস বাংলার একটি বিমান কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়ে ৮ যাত্রী নিহত হয়েছে। বিমানের থাকা ৭৮ যাত্রী ও ক্রর মধ্যে এ ১২ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে নেপালের বিভিন্ন গণমাধ্যম।

কাঠমান্ডু পোস্টের প্রতিবেদনের সূত্র দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনের জানানো হয়েছে, সোমবার দুপুর ১২টা ৫১ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৭৮ যাত্রী নিয়ে ছেড়ে যায় বিমানটি।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি ইনডিপেন্ডেন্ট স্থানীয় প্রতিনিধির মাধ্যমে জানাচ্ছে, বিমানটি কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়ে (দুই নং প্ল্যাটফর্ম) থেকে পাশের ফুটবল খেলার মাঠে বিধ্বস্ত হয়।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, প্লেনটি বোম্বার্ডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ৪০০ মডেলের এস২-এজিইউ। বাইরে পাখাবিশিষ্ট এ ধরনের প্লেনে সর্বোচ্চ ৭৮টি আসন থাকে।

নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব সুরেশ আচার্য্য জানিয়েছেন, প্লেনটিতে ৬৭ আরোহী ছিলেন। দুর্ঘটনাস্থল থেকে ১৭ জনকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিধ্বস্ত বিমানে ৩০ জন বাংলাদেশি যাত্রী

নেপালের কাঠমান্ডু ত্রিভূবন বিমান বন্দরে বিধ্বস্ত হওয়া বিমানে ৩০ জন বাংলাদেশি যাত্রী ছিল বলে জানিয়েছে ইউএস বাংলা কর্তৃপক্ষ। সোমবার বিকালে ঢাকায় গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন বিমান সংস্থা সংশ্লিষ্টরা। ৩০ জন বাংলাদেশি ছাড়াও ৩০ জন নেপালি ও একজন মালদ্বিপের নাগরিক ছিল বলে জানিয়েছেন তারা।

ঢাকা থেকে নেপালের কাঠমান্ডুর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া ইউএস বাংলার ওই বিমানটি কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সোমবার বেলা ৩টা ৫মিনিটে বিধ্বস্ত হয় । বিমানের থাকা ৭৮ যাত্রী ও ক্রর মধ্যে এ ১২ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে নেপালের বিভিন্ন গণমাধ্যম। এছাড়া অপর ৩০ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি ইনডিপেন্ডেন্টস্থানীয় প্রতিনিধির মাধ্যমে জানাচ্ছে, বিমানটি কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়ে (দুই নং প্ল্যাটফর্ম) থেকে পাশের ফুটবল খেলার মাঠে বিধ্বস্ত হয়।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, প্লেনটি বোম্বার্ডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ৪০০ মডেলের এস২-এজিইউ। বাইরে পাখাবিশিষ্ট এ ধরনের প্লেনে সর্বোচ্চ ৭৮টি আসন থাকে।

নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব সুরেশ আচার্য্য জানিয়েছেন, প্লেনটিতে ৬৭ আরোহী ছিলেন। দুর্ঘটনাস্থল থেকে ১৭ জনকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top