হোয়াইক্যংয়ে বোনের সাথে ঝগড়ার জেরধরে স্কুল ছাত্রীর আত্নহত্যা

Hang.jpg

মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম : হোয়াইক্যংয়ে বড় বোনের সাথে ঝগড়ার জেরধরে চরম ক্ষোভ ও অভিমানে এক স্কুল ছাত্রী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করেছে। জানা যায়,১৩ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যা ৬টারদিকে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের পশ্চিম মহেশখালীয়া পাড়ার সৌদি প্রবাসী হাজী কবির আহমদ ও মমতাজ বেগম দম্পতির ৫ম মেয়ে ও নয়াবাজার হাইস্কুলের ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী সুমাইয়া (১০) গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করে। খবর পেয়ে রাতেই হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির আইসি নির্মল চাকমা সর্ঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। উল্লেখ্য, সকালে বড় বোন শাকি সাথে আভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে সুমাইয়ার ঝগড়া হয়। বাড়ির লোকজন তাদের ঝগড়া শান্ত করেন। এদিকে ঝগড়া ও গালমন্দে চরম অপমানবোধ করে কোমলমতি সুমাইয়া। এরপর সন্ধ্যা ৬টারদিকে ঘরের ভেতরে নিজ রুমে ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আতœহত্যার পর তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে কান্নাকাটি শুরু হয়। বিষয়টি স্থানীয় মেম্বার ও থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়। এই ঘটনায় পরিবারসহ এলাকাবাসীর মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। হোয়াইক্যং ফাঁড়ির আইসি নির্মল চাকমা,স্কুল ছাত্রীর আতœহত্যার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,এই ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। স্থানীয় মেম্বার আব্দুল জাব্বার, গলায় ফাঁস লাগিয়ে স্কুল ছাত্রী আত্নহনের বিষয়টি স্বীকার করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top