টেকনাফে হাকিম ডাকাতের বাড়ী ও আস্তানায় বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসীর ভাংচুর

teknaf-pic-12.02.2018-H2.jpg

টেকনাফ প্রতিনিধি ॥

টেকনাফের দূর্ধর্ষ রোহিঙ্গা ডাকাত আবদুল হাকিম ও তার সহযোগীদের ৭টি বসতবাড়ী-আস্তানায় ভাংচুর চালিয়েছে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী। ১২ ফেব্রুয়ারি সোমবার সকাল ১১ টা থেকে টেকনাফ পৌরসভার পল্লান পাড়া এলাকার শত শত বিক্ষুদ্ধ জনতা সংঘবদ্ধ হয়ে বৈদ্দ ঘোনা এলাকায় ৪টি, মোনাফ ঘোনায় ১টি, মায়মুনা প্রাইমারি স্কুল ও স্থানীয় মোঃ হারেছ কাউন্সিলরের বাসা সংলগ্ন ২ টি বসতবাড়ী ভাংচুর করে।
গত শুক্রবার স্থানীয় এক যুবককে মুক্তিপনের দাবীতে অপহরনের ঘটনায় এলাকাবাসী বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছে। অবশ্য পুলিশ ও জনতা রোববার পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে অপহৃত যুবককে উদ্ধার করে। এঘটনার পর থেকে স্থানীয় লোকজন হাকিম ডাকাতের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠে। দীর্ঘদিন ধরে রোহিঙ্গা ডাকাত সর্দার আবদুল হাকিম উপজেলা কমপ্লেক্স সংলগ্ন পাহাড়ী এলাকায় আস্তানা গেড়ে গুম, খুন, অপহরণ ও নির্যাতন চালিয়ে আসছিল।
স্থানীয় পৌরকাউন্সিলর আবু হারেছ জানান, হাকিম ডাকাত ও সহযোগীদের আস্তানাসহ ৭টি বাড়ীতে ভাংচুর চালায় বিক্ষুদ্ধ লোকজন। ভাংচুরকৃত বাড়ীর লোকজন আগেই সরে পড়েছিল।
টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাঈন উদ্দিন খান সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী ডাকাত দলের বেশ কয়েকটি আস্তানা গুড়িয়ে দিয়েছে বলে শুনেছি।
এদিকে স্থানীয় লোকজন জানায়, হাকিম ডাকাত যে কোন সময় রাতের অন্ধকারে স্থানীয়দের উপর হামলা চালাতে পারে বলে আশংকা করছেন। হাকিম ডাকাত গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত এ আতংক কাটবেনা বলেও জানান এলাকাবাসী।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top