খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে নয়াপল্টনে বিএনপির অবস্থান

image-17253-1518501951.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক :
দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ড নিয়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বিএনপি ও ২০ দলের নেতাকর্মীরা।

জাতীয় প্রেসক্লাব ও ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চত্বরে অবস্থান নেয়ার অনুমতি না পাওয়ার পর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচি শুরু হয়।

বেলা ১১টায় কর্মসূচি শুরুর কথা থাকলেও সাড়ে ১০টা নাগাদ অবস্থান কর্মসূচিতে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে কয়েক হাজার নেতাকর্মী যোগ দেন। তারা খালেদা জিয়াকে মা সম্বোধন করে নানা স্লোগান দিয়ে নয়াপল্টন এলাকা মুখরিত করে তুলছেন। এর মধ্যে তরুণ কর্মীদের মুখে মুখে ফিরছে একটি স্লোগান-‘বন্দি আছে আমার মা ঘরে ফিরে যাব না’।

অবস্থান কর্মসূচিতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস ও নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুল আউয়াল মিন্টু ও এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, জয়নাল আবদীন ফারুক, হাবিবুর রহমান হাবিব ও আবুল খায়ের ভূঁইয়া, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, এলডিপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন ও রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ ও শহীদুল ইসলাম বাবুল, তথ্য ও গবেষণাবিষয়ক সহসম্পাদক কাদের গণি চৌধুরী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি শফিউল বারী বাবু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, ছাত্রদলের সহসভাপতি আলমগীর হাসান সোহান, নাজমুল হাসান প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top