চকরিয়ায় অস্ত্রের মুখে চিংড়ি চাষীকে অপহরণ ২ঘন্টা পর আহতবস্থায় প্যারাবন থেকে উদ্ধার

.jpg

প্রতিকী ছবি

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়া উপজেলার রামপুর চিংড়িজোনের বদরখালী পয়েন্টে একটি চিংড়িঘেরে শনিবার বিকাল তিনটার দিকে হামলা চালিয়ে মহিউদ্দিন (৩৬) নামের এক চাষীকে অপহরণ করেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনার খবর পেয়ে আশপাশের ঘের মালিক ও চাষীরা এগিয়ে গেলে দুর্বৃত্তরা ঘটনাস্থল থেকে অন্তত ১২ কিলোমিটার দুরের প্যারাবনে অপহৃতাকে ফেলে পালিয়ে যায়।
পরে এদিন বিকাল পাঁচটার দিকে প্যারাবন থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় গুরুতর আহত ওই চাষীকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেছে পরিবার সদস্যরা। আহত মহিউদ্দিন উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের ৩নম্বর বøকের বাসিন্দা মাস্টার নুরুজ্জামানের ছেলে।
গতকাল রোববার বিকালে আহত চিংড়ি চাষী মহিউদ্দিন জানান, চিংড়িজোনের রামপুর মৌজার আট নম্বর পোল্ডারের ৪নম্বর ¯øুইচ লাগোয়া বদরখালী পয়েন্টে ৩০ একর আয়তনের একটি চিংড়িঘের তিনি লাগিয়ত নিয়ে মৎস্য চাষ ও শুস্ক মৌসুমে লবণ চাষ করে আসছেন। শনিবার বিকালে তিনি ঘেরের ভরাট অংশে লবণ মাঠে কাজ করার সময় ৭-৮ জনের অস্ত্রধারী হঠাৎ সেখানে এসে তাঁর উপর হামলা করে। ছুরিকাঘাত করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে।
মহিউদ্দিন জানান, মারধর শেষে দুর্বৃত্তরা এক পর্যায়ে অস্ত্রের মুখে জিন্মি করে একটি নৌকা বোটে তুলে তাকে ঘের থেকে অন্তত ১২ কিলোমিটার দুরে দক্ষিনে ছিরাদিয়া (মহেশখালীর গোরকঘাট) পয়েন্টের দিকে নিয়ে যায়। ওইসময় দুর্বৃত্তরা তাঁেক ছেঁেড় দেয়ার বিনিময়ে পরিবার থেকে ৩লাখ টাকা নিয়ে কাউকে হাজির হতে নির্দেশ দেন। ফোনে টাকার বিষয়টি পরিবারকে বলতে বাধ্য করেন।
চিংড়িচাষী মহিউদ্দিন জানান, ৩ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবির বিষয়টি পরিবারকে জানানোর পর আমাকে অপহরণ করার ঘটনাটি ঘেরের আশপাশের মালিক ও চাষীরা জানতে পারে। পরে ঘের মালিক ও চাষীরা জড়ো হয়ে আমাকে উদ্ধারে এগিয়ে আসলে অবস্থা বেগতিক দেখে দুর্বৃত্তরা প্যারাবনে আমাকে ফেলে পালিয়ে যায়। তবে ঘটনার সময় তাঁরা আমার কাছ থেকে লবণ বিক্রির নগদ ৫০ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল সেট নিয়ে গেছে।
হামলা ও অপহরণের ঘটনায় বদরখালী ইউনিয়নের ৩নম্বর বøকের বাসিন্দা আবদুল কাদেরের ছেলে আনোয়ারুল কাদের প্রকাশ শেফার নেতৃত্ব দেন বলে অভিযোগ করেছেন আহত মহিউদ্দিন। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে চকরিয়া থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্ততি নিচ্ছেন বলে গতকাল রাতে নিশ্চিত করেছেন আহত চিংড়ি চাষী মহিউদ্দিন। #

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top