টেকনাফের গোদারবিল মাদরাসা আনাস বিন মালিক (রাঃ)’র কে,জি বিভাগ কেন্দ্রীয় সনদ পরীক্ষায় ১২ জন A+ সহ শতভাগ সাফল্য

Teknaf-pic-03.1.2018-s.jpg

টেকনাফ টুডে ডটকম :
টেকনাফ সদর ইউনিয়নের গোদারবিল মাদরাসা আনাস বিন মালিক (রাঃ) এর তত্তাবধানে পরিচালিত ইসলামী আদর্শ কে,জি বিভাগের শিক্ষার্থীরা কেন্দ্রীয় সনদ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। মোট ২১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১২ জন A+, ৫জন অ গ্রেড , ৪ জন অ- গ্রেডে উত্তীর্ণ হয়ে এ কৃতিত্ব অর্জণ করে। অ+ প্রাপ্তরা হচ্ছে, আনোয়ার হোসেনের ছেলে মুহাম্মদ জুনাইদ (রেজিঃ নং ৫৬৩৭৬), মীর কাসেমের ছেলে লিয়াকত আলী (রেজিঃ নং ৫৬৩৭৭), লোকমান হাকিমের ছেলে মুহাম্মদ জাসিম আরফাত (রেজিঃ নং ৫৬৩৭৮), মমতাজ মিয়ার পুত্র আবদুল্লাহ আল নোমান (রেজিঃ নং ৫৬৩৭৯), মাওঃ আবদুস সালামের মেয়ে মুসাম্মাৎ আয়েশা ( রেজিঃ নং ৫৬৩৮০),আবুল বশরের ছেলে মুজিবুল হক (রেজিঃ নং ৫৬৩৮২), আবুল কালামের মেয়ে ফাহিমা খানম (রেজিঃ নং ৫৬৩৮৩), মাওঃ সাইফুল্লাহর ছেলে আরফাত হোছন ( রেজিঃ নং ৫৬৩৮৪), মুহাম্মদ জাফরের মেয়ে আফিফা (রেজিঃ নং ৫৬৩৮৫), হুসাইন আলীর মেয়ে জায়নাব হুসাইন সানিয়া (রেজিঃ নং ৫৬৩৮৬), মুহাম্মদ সৈয়দ,র মেয়ে কহিনুর আক্তার ছফা (রেজিঃ নং ৫৬৩৮৭), মুহাম্মদ দুদু মিয়ার মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ( রেজিঃ নং ৫৬৩৮৯), A গ্রেড প্রাপ্তরা হচ্ছে, মাওঃ আবদুস সালামের মেয়ে হাফসা (রেজিঃ নং ৫৬৩৮১), হাফেজ মুহাম্মদ ইব্রাহীমের ছেলে মুহাম্মদ খুজাইফা (রেজিঃ নং৫৬৩৮৮),বশির আহমদের মেয়ে আরফিয়া (রেজিঃ নং৫৬৩৯০), রশিদ আহমদের ছেলে সাদেক হোছেন খোকা (রেজিঃ নং ৫৬৩৯১), নুরুল আলমের ছেলে মিজানুর রহমান (রেজিঃ নং৫৬৩৯৫), অ- প্রাপ্তরা হচ্ছে আতাউল্লাহর ছেলে সাইফুল ইসলাম (রেজিঃ নং৫৬৩৯২), শফিক আহমদের ছেলে নজরুল ইসলাম (রেজিঃ নং৫৬৩৯৩), আকবর হোসেনের ছেলে মুহাম্মদ জুনাইদ (রেজিঃ নং৫৬৩৯৪), হাজী আবদুর রহীমের মেয়ে নাছরিন আরা হ্যাপি (রেজিঃ নং৫৬৩৯৬)। আগামীতেও এ ধারা যেন অব্যাহত থাকে সেজন্য মহান আল্লাহর নিকট সকলের দোয়া কামনা করেছেন মাদরাসার মুহতামিম মাওঃ শফিউল্লাহ জমিরী।
ইসলামী আদর্শ কে,জি. বিভাগের প্রধান শিক্ষক মাওঃ মোঃ করিম আরফাত জানান, মহান আল্লাহ পাকের অসীম রহমতে টেকনাফ উপজেলা হতে কেন্দ্রীয় সনদ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে প্রতিবারের মত এবারও শতভাগ উত্তীর্ণ হয়েছে। এ ফলাফলের পিছনে মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নুরুল বশর (সাবেক কাউন্সিলর), মাদরাসার মুহতামিম মাওঃ শফিউল্লাহ জমিরী, শিক্ষা পরিচালক মাওঃ হাফেজ আবদুশ শাকুর এর সুদক্ষ পরিচালনা ও সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে ভাল ফলাফল অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। তিনি আরো জানান, ২০১৭ শিক্ষাবর্ষে ২১ জন শিক্ষার্থী নূরাণী তা’লীমুল কোরআন বোর্ড চট্্রগ্রাম বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় সনদ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছিল। সকলেই ভাল ফলাফল করে মাদরাসার শিক্ষার মানোন্নয়নে ধারাবাহিকতা রক্ষা করেছে।
উল্লেখ্য, ২০১৮ শিক্ষা বর্ষে শিশু শ্রেণী থেকে চতুর্থ শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্র/ছাত্রী ভর্তি চলছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top