রোহিঙ্গারা যাতে কোন অবস্থাতেই অমানবিক আচরনের শিকার না হয়.. বীর বাহাদুর

Beer-bzhzdur.jpg

শামীম ইকবাল চৌধুরী,নাইক্ষ্যংছড়ি(বান্দরবান)থেকে::
রোহিঙ্গা ইস্যুতে নাইক্ষ্যংছড়িতে বিশেষ মতবিনিময় সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ও বান্দরবান আসনের সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন- মিয়ানমার আর্মির নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচার জন্য বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা আমাদের মেহমান। তবে তারা শরনার্থী একথাও সবাইকে মনে রাখতে হবে। বান্দরবান সীমান্তের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা রোহিঙ্গাদের কক্সবাজারের উখিয়া কতুপালং, বালুখালী ও ঠ্যাংগাখালী এলাকায় নিরাপদে রাখতে সরকার বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে। রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ইতি মধ্যে বাংলাদেশ সরকার কূটনৈতিক তৎপরতা চালাচ্ছে। এ সমস্যার সামাধান না হওয়া পর্যন্ত রোহিঙ্গারা বর্তমান স্থানে থাকবে। তাদের খাবার, চিকিৎসা সেবা সহ সব কিছুর দায়িত্ব বর্তমান সরকার নিয়েছে। আশ্রিত রোহিঙ্গারা যাতে কোন অবস্থাতেই অমানবিক আচরনের শিকার না হয় সে বিষয়ে সকলকে সজাগ থাকতে হবে।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন- ব্যক্তিগত ভাবে কেউ যদি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় প্রশ্রয় দেয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। মিয়ানমার সাম্প্রদায়িক হামলার ইস্যুতে বাংলাদেশে সবাইকে সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য তিনি সকলের প্রতি অনুরোধ জানানোর পাশাপাশি অপপ্রচার ও গুজবে কান না দেওয়ার জন্য সকলের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান। বুধবার সকাল ১১টায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদরে তিনি এসব কথা বলেন।
উপজেলা আওয়ামীলীগ যুগ্ন আহ্বায়ক ও ুসদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী পরিচালনায় বান্দরবান জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, নাইক্ষ্যংছড়ি ৩১ বিজিবি ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লে: কর্নেল আনোয়ারুল আযীম, বান্দরবান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুজ্জামান, আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য শফিকুর রহমান, জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা মো: নুরুল আবছার চৌধুরী, বান্দরবান পৌর মেয়র ইসলাম বেবী, জেলা পরিষদ সদস্য লক্ষী পদ দাশ, ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. অং সুই প্রু মার্মা, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা এস,এম সরওয়ার কামাল, উপজেলা আওয়ামীলীগ আহ্বায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য ক্যউচিং চাক, যুগ্ম আহ্বায়ক আবু তাহের কোম্পানী, উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো: কামাল উদ্দিন, সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী, বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলম, সোনাইছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান বাহাইন মার্মা, ঘুমঘুম ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ, দোছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুল্লাহ প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top