‘আমার স্বামীর সঙ্গে সাড়ে চার বছর ডেট করেছে কঙ্গনা’

kangana_57676_1505156304.jpg

: আর কোনো লুকোচুরি নয়। আদিত্য পাঞ্চোলির সঙ্গে যে সত্যিই কঙ্গনা রানাওয়াতের সম্পর্ক ছিল তা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন আদিত্যর স্ত্রী জারিনা ওয়াহাব।

বিস্ফোরক জারিনার দাবি, ‘কঙ্গনা আমার স্বামীর সঙ্গে সাড়ে চার বছর ধরে ডেট করেছিল। ওকে আমি মেয়ের মতো ভাবব কীভাবে? অসম্ভব!’ পিঙ্কভিলাকে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে সম্প্রতি এই দাবি করেছেন জারিনা।

বেশ কয়েক দিন আগে নিজের ১৭ বছর বয়সে বাবার বয়সী একজনের কাছে শারীরিকভাবে হেনস্থা হওয়ার কথা প্রকাশ্যে এনেছিলেন কঙ্গনা। তখন সরাসরি কারও নাম না বললেও সম্প্রতি অভিযোগের আঙুল তুলেছেন আদিত্য পাঞ্চোলির দিকে। সে সময় নাকি আদিত্যর স্ত্রী জারিনার কাছে সাহায্যের জন্যও গিয়েছিলেন কঙ্গনা। কিন্তু জারিনা নাকি তাকে ফিরিয়ে দেন। কঙ্গনার কথায়, ‘আমি ওর মেয়ের থেকেও এক বছরের ছোট ছিলাম। আমি ওর স্ত্রীর কাছে গিয়ে বলেছিলাম, আমাকে বাঁচান। কারণ এতটাই ছোট ছিলাম যে আমার সঙ্গে যা ঘটেছিল তা বাবা-মাকেও বলতে পারিনি।’ কিন্তু জারিনা সে সময় তাকে কোনো সাহায্য করেননি বলে অভিযোগ করেন কঙ্গনা। এর পর বাধ্য হয়ে কঙ্গনা পুলিশের সাহায্য চেয়েছিলেন। সে সময় শুধুমাত্র সতর্ক করেই নাকি আদিত্যকে ছেড়ে দেয় পুলিশ

এ প্রসঙ্গে জারিনা বলেন, ‘কঙ্গনার সঙ্গে আমার বেশ কয়েকবার দেখা হয়েছে। কারণ আদিত্য চেয়েছিল আমি ওকে সঞ্জয় লীলা বানসালীর সঙ্গে আলাপ করিয়ে দেই। আমি সেটাই করেছিলাম। কিন্তু ও আমার বাড়িতে এলে আমার খারাপ লাগত, এটা ওকে বলব কেন? আমার সমস্যা নিয়ে আমার বোনের সঙ্গেই কখনও আলোচনা করিনি। কঙ্গনা কে? যে ওকে বলতে হবে!’

যদিও কঙ্গনার অভিযোগ আগেই উড়িয়ে দিয়েছিলেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জারিনার এক বন্ধু।

তিনি সংবাদমাধ্যমে জানান, ‘কঙ্গনা নাকি কখনই জারিনার কাছে আদিত্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেননি। কখনও কোনো সাহায্যের জন্যও যাননি। কঙ্গনা সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ করছেন বলে দাবি করেছিলেন জারিনার ওই বন্ধু।

তিনি বলেন, ‘কঙ্গনা প্রথম মুম্বাইতে যাওয়ার পর জারিনা তাকে নিজের মেয়ের মতো যত্ন নিতেন। একটি ফাঁকা ফ্ল্যাটের চাবিও দিয়ে দেন। তার বিনিময়ে জারিনার স্বামী আদিত্য পাঞ্চোলির সঙ্গে ও বেরিয়ে যায়। এটাই ওর সৌজন্য! আর এখন জারিনার বিরুদ্ধেও কথা বলছেন কঙ্গনা।’

তবে কঙ্গনার অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পর তার বিরুদ্ধে পাল্টা আইনি পদক্ষেপের হুঙ্কার ছেড়েছিলেন আদিত্য। তিনি বলেছিলেন, ‘ওর মানসিক সমস্যা আছে। তা না হলে কেউ এভাবে কথা বলে? এত দিন ইন্ডাস্ট্রিতে আছি, কেউ কখনও আমার বিরুদ্ধে কিছু বলেনি। ওর সব অভিযোগ মিথ্যা। আমি ও আমার স্ত্রী ওর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেব।’

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top