রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেবে মালয়েশিয়া

Teknaf-pic1_07.09-Copy.jpg

অনলাইন ডেস্ক :
মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনীর হামলা-নির্যাতন-ধর্ষণের মুখে জীবন বাঁচাতে বিপদসঙ্কুল সমুদ্রপথ পাড়ি দিয়ে কোনো রোহিঙ্গা মুসলমান যদি মালয়েশিয়ায় পৌঁছায় তাহলে তাদের আশ্রয় দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার রয়টার্সকে মালয়েশিয়া মেরিটাইম এনফোর্সমেন্ট এজেন্সির (কোস্টগার্ড) মহাপরিচালক জুলকিফলি আবু বকর বলেন, নতুন করে সহিংসতা শুরুর পর শত শত মাইল পাড়ি দিয়ে আন্দামান সাগর দিয়ে ছোট ছোট নৌকায় করে রোহিঙ্গারা মালয়েশিয়া উপকূলের দিকে আসতে পারে। আগে থেকেই এক লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী মালয়েশিয়ায় আশ্রয়ে রয়েছে।
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা উপকূলে তাদের আটক করে প্রাথমিক মানবিক সাহায্য দিয়ে পুনরায় তাদের একই সমুদ্রপথে ঠেলে দিতে পারি। কিন্তু দিন শেষে মানবতার কারণে আমরা এটা করতে পারি না।’ আবু বকর বলেন, ‘আমরা তাদের জন্য মৌলিক প্রয়োজনীয়তাগুলো প্রদান অব্যাহত রাখব এবং অস্থায়ীভাবে আশ্রয় দিতে প্রস্তুত আছি।’ এখন পর্যন্ত নতুন করে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দেখা যাচ্ছে না বলে জানান আবু বকর। বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে রোহিঙ্গাদের জন্য মানবিক সহায়তা পৌঁছে দিতে প্রতিনিধি প্রেরণের কথাও জানান তিনি।
মালয়েশিয়া জাতিসংঘের শরণার্থী কনভেনশনের অনুসিদ্ধান্তে স্বাক্ষর করেনি। শরণার্থীদের এখানে অবৈধ অভিবাসী হিসেবেই চিহ্নিত করা হয়। মুসলিম অধ্যুষিত মালয়েশিয়ায় জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) ৫৯ হাজার নিবন্ধিত শরণার্থী রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top