চকরিয়ায় দিনদুপুরে ৬ লাখ টাকার গাছ কেটে লুট, বাবা-ছেলেকে পিটিয়ে জখম

Chakaria-Picture-09-09-2017.jpg

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া :
চকরিয়া উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নে দিনদুপুরে হামলা চালিয়ে বসতভিটার প্রায় ৬লাখ টাকার বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে লুটের ঢ়ঘটনা ঘটেছে। এসময় বাঁধা দিতে গিয়ে হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন গৃহকর্তা আবুল কাসেম (৬৫) তার ছেলে রিয়াদ উদ্দিন (১৬)। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ইউনিয়নের বেতুয়াবাজারস্থ নয়াপাড়া গ্রামে ঘটেছে এ হামলার ঘটনা। অভিযুক্ত ঘটনাটি মিমাংসার কথা বলে উল্টো নানাভাবে হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন আক্রান্ত পরিবারটির গৃহকর্তা।
গতকাল শনিবার বিকালে আহত গৃহকর্তা আবুল কাসেম চকরিয়া শহরে এসে সাংবাদিকদের কাছে ঘটনার বিস্তারিত তুলে ধরেন। তিনি জানান, তার বসত ভিটার পতিত অংশে বিপুল টাকা খরচ করে অনেকবছর আগে গাছ লাগিয়ে সুপারি বাগান, বিভিন্ন ফলজ ও বনজ বাগান করেন। এসব গাছ থেকে প্রতিবছর আয়ের টাকায় পরিবারের ভরণ-পোষন চালিয়ে আসছিলেন।
ভুক্তভোগী গৃহকর্তা আবুল কাসেম অভিযোগ করেছেন, একই এলাকার মৃত হাফেজ আহামদের ছেলে আবু তাহের তাঁর বসতভিটার জায়গা দখলে নানা ধরণের অপকর্ম চালিয়ে আসছে। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার সকালে ১০-১৫ জনের একটি দল হামলা চালিয়ে বাগানের প্রায় ৬ লাখ টাকার গাছ কেটে লুটে নিয়ে। এসময় বাঁধা দিতে গেলে তাকে ও স্কুল পড়–য়া ছেলেকে মারধরে গুরুতর আহত করে।
এ ঘটনার পর পরিবারের অন্য সদস্যরা প্রতিবেশিদের সহায়তায় আহত বাবা-ছেলেকে উদ্ধার করে চকরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্ততি নিচ্ছেন বলে জানান আহত গৃহকর্তা আবুল কাসেম।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top