স্কুলের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে প্রাক্তন ছাত্র পরিষদকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে..ডঃ ফরিদ

Teknaf-Pic-B-2-03-09-17.jpg

হুমায়ূন রশিদ, টেকনাফ।
টেকনাফের হ্নীলা হাইস্কুল প্রাক্তন ছাত্র পরিষদের ঈদ পুনর্মিলনী ও উম্মুক্ত মতবিনিময় সভায় চবির ডিন ও স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র ডঃ ফরিদ উদ্দিন আহামেদ বলেন, এক সময়ে ঐতিহ্যবাহী হ্নীলা হাইস্কুল মেধা ও মননের বিকাশ ঘটিয়ে অনেক যোগ্য নাগরিক গড়ে তোলে দেশ এবং জাতির সেবায় নিয়োজিত করেছেন। এখনো রাষ্ট্রযন্ত্রের বিভিন্ন স্তরে এই স্কুলের গর্বিত শিক্ষার্থীরা সততা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এই এলাকাটি সীমান্ত জনপদ হওয়ায় বিবিধ কারণে এই স্কুলটি আজ অর্জিত গৌরব হারাতে বসেছে। আমরা সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই স্কুলের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে কাজ করতে হবে বলে উপস্থিত সকলের প্রতি আহবান জানান।
গত ৩সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টায় হ্নীলা হাইস্কুল হল মিলনায়তনে হ্নীলা হাইস্কুল প্রাক্তন ছাত্র পরিষদের ঈদ পূর্ণমিলনী ও মতবিনিময় সভায় সংগঠনের সভাপতি মুহাম্মদ শহীদ উল্লাহর সভাপতিত্বে এবং জাহেদ হোসাইন পুলকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন হ্নীলা হাইস্কুলের প্রাক্তন ছাত্র ও চবির ডিন অধ্যাপক ডঃ ফরিদ উদ্দিন আহামেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাক্তন ছাত্র ও হ্নীলা হাইস্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মাহবুব মোরশেদ,প্রাক্তন ছাত্র ফখরুদ্দিন আহমেদ,সাধারণ সম্পাদক নুরুল হোসাইন আজাদ, হ্নীলা হাইস্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুস সালাম,সিনিয়র শিক্ষক ছিদ্দিক আহমদ বিএসসি। সংগঠনের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন,সাংগঠনিক সম্পাদক আলা উদ্দিন রাসেল। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, হ্নীলা হাইস্কুল প্রাক্তন ছাত্র পরিষদের যুগ্নসম্পাদক মোঃ ইউছুপ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক তারেক মাহমুদ রনি,সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক এহসান উদ্দিন,সদস্য এডভোকেট রশিদুল আলম, মোঃ ফেরদৌস, জকি ওসমান, মিঠুন চক্রবর্তী, মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, জুবাইর ওসমান, হেলাল উদ্দিন, নোমান পারভেজ শাহ, সরওয়ার কামাল, জুবাইর, আব্দুর রহমান, দেলোয়ার হোসেন, ছৈয়দুল হক ও চুসাটের সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল হক বাধঁন প্রমুখ। ঈদ পূর্ণমিলনী ও আলোচনা সভা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এরপর দ্বিতীয় অধিবেশনে অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী প্রধান উপদেষ্টা, ডঃ ফরিদ উদ্দিন আহামেদ, ডাঃ জামাল আহমদ, সিরাজুল মনোয়ার, মাস্টার মোফাজ্জল হক, খলিলুর রহমান, ফোরকান আহমদ ও এইচএম ইউনুছ বাঙ্গালীকে সদস্য করে উপদেষ্টা পরিষদ, মোঃ শহীদুল্লাহ, মাহবুব মোরশেদ, নুরুল হোসাইন আজাদ, জামাল সাদেক ও রিদুওয়ানুল হককে নিয়ে স্থায়ী পরিষদ এবং আলা উদ্দিন আহমেদ রাসেল সভাপতি, মুহাম্মদ আলম সিনিয়র সহসভাপতি, মুহাম্মদ ইউসুফ, তারেক মাহমুদ রনি সহসভাপতি, এহসান উদ্দিন সাধারণ সম্পাদক, আবদুস সামাদ, মুজিবুর রহমান, জকি ওসমান যুগ্ন সম্পাদক, জাহেদ হোসাইন পুলক, বাদশাহ খালেদ, মোঃ সোহেল সিকদার সাংগঠনিক সম্পাদক, কায়সার রশিদ অর্থ সম্পাদক, মোকতার আহমদ উপ-অর্থ সম্পাদক, সাইদুর রহমান দপ্তর সম্পাদক, আবদুল্লাহ আল নোমান উপ-দপ্তর সম্পাদক, আমান উল্লাহ আমান প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, নাছির উদ্দিন উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, সিরাজুল ইসলাম (মাংগো) সংস্কৃতি ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক, কামাল হোসাইন উপ-সংস্কৃতি ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক, মাহমুদুল আযম সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক, এডঃ রশিদুল হক আইন বিষয়ক সম্পাদক, শুভ পাল আপ্যায়ন সম্পাদক, কহিনুর সিকদার মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, মোহাম্মদ আলম আবু ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, রফি ওসমান প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, মোহাম্মদ হেলাল, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, আবু তালেব সহসম্পাদক, মোহাম্মদ উল্লাহ, দেলোয়ার হোসাইন ও সাইদুল হককে নির্বাহী সদস্য করে ৩১সদস্য বিশিষ্ট একটি শক্তিশালী কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়। ###

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top