৮৮ রানের লিডে দিন শেষ টাইগারদের

tamim_56553_1503919543.jpg

: নিজের ৫০তম টেস্টকে স্মরণীয় করে রাখার দিকে একধাপ এগিয়ে গেলেন বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ৫ উএকট নিয়ে অনন্য নজির গড়ার পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাটে-বলে এগিয়ে থাকা সাকিব দলকেও এগিয়ে রাখলেন ৪৩ রানে।

এই লিডকে বাড়িয়ে নেয়ার দায়িত্ব পালন করছিলেন ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার।

তবে দিন শেষে সৌম্য সরকারের চেনা পথে ফেরার আক্ষেপটাই সঙ্গী হলো টাইগারদের। দ্বিতীয় দিনের শেষ ওভারের আগে ব্যক্তিগত মাত্র ১৫ রানে আগারের বলে খাজার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সৌম্য।

সৌম্যর উইকেট হারানোর পর ৮৮ রানের লিড নিয়ে দিন শেষ করে টাইগাররা। তামিম ৭০ বল খেলে ৩০ এবং তাইজুল ইসলাম ৯ বল খেলে শূন্য রানে অপরাজিত রয়েছেন।

তবে দুই টাইগার ওপেনারের ইনিংসের শুরুটা ভালো ছিল। ধারণা করা হচ্ছিল প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও যদি তামিম দায়িত্ব নিয়ে ব্যাট করেন এবং সৌম্য যদি তাকে যোগ্য সাপোর্ট দিতে পারেন তাহলে তৃতীয় দিনে বাংলাদেশ বেশ বড় সংগ্রহ গড়তে পারবে।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ২৬০ রানের জবাবে মাঠে নেমে টাইগারদের স্পিন জাদুতে মাত্র ২১৭ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। এতে ৪৩ রানের লিড পায় টাইগাররা।

ম্যাট রেনশ ৪৫, পিটার হ্যান্ডসকম্ব ৩৩, পেট কামিন্স ২৫, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ২৩ এবং অ্যাস্টন আগার ৪১ রানে অপরাজিত থাকেন।

বাংলাদেশের হয়ে সাকিব আল হাসান ৫টি, মেহেদী হাসান মিরাজ ৩টি এবং তাইজুল ইসলাম ১টি উইকেট লাভ করেন।

এদিকে নিজের ৫০তম টেস্টকে স্মরণীয় করে রাখার দিকে একধাপ এগিয়ে গেলেন বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ৫ উইকেট নিয়ে অনন্য নজির গড়েন তিনি।

এর আগে রোববার টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ তাদের প্রথম ইনিংসে ২৬০ রানে অলআউট হয়।

দলের পক্ষে সাকিব ৮৪ এবং তামিম ৭১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। এছাড়া বাংলাদেশ দলে আর কোনো উল্লেখযোগ্য ইনিংস নেই।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে পেট কামিন্স, নাথান লায়ন ও অ্যাস্টন আগার প্রত্যকেই ৩টি করে এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ১টি উইকেট লাভ করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top